ইহুদি ধর্মে চূরান্ত বা শেষ বা সত্য নবী মুহাম্মাদ (স), ধর্মগ্রন্থ থেকে ভবিষ্যতবাণী ও ব্যাখ্যা এবং দলিল বা রেফারেন্স সহ বিস্তারিত

ইহুদি ধর্মে মুহাম্মাদ
ইহুদি ধর্মে চূরান্ত বা শেষ বা সত্য নবী মুহাম্মাদ (স), ধর্মগ্রন্থ থেকে ভবিষ্যতবাণী ও ব্যাখ্যা এবং দলিল বা রেফারেন্স সহ বিস্তারিত

তাওরাতে মুহাম্মাদ (স):

দ্বিতীয় বিবরণী ৩৩:২ঃ-
ויאמר יהוה מסיני בא וזרח משעיר למו הופיע מהר פארן ואתה מרבבת קדש מימינו אש דת למו׃
অনুবাদ:-
তিনি বললেন, “স্রষ্টা সিনাই থেকে এসেছেন এবং আমাদের উপর সেইর(এসাউর) পর্বতে আলো উদিত হলো,যিনি কিনা পারাণ পর্বত [1] থেকে উন্মেষ হবেন; ১০০০০(দশ হাজার) পবিত্র জনের একজন [2] ডান হাতে জ্বলন্ত আগুন নিয়ে আসবেন। ”
বাইবেলে Old Testament এর Habakkuk পুস্তকে আবারও সেই পারাণকে উল্লেখ করে বলা হয়েছেঃ-
אלוה מתימן יבוא וקדוש מהר” פארן סלה כסה שמים הודו ותהלתו מלאה הארץ
অনুবাদঃ- স্রষ্টা তিমন থেকে এসেছেন,আর সেই পবিত্র ব্যাক্তি পারাণ পর্বত থেকে আসবেন।প্রভুর মহিমা স্বর্গকে আচ্ছাদন করে।তাঁর প্রশংসায় পৃথিবী পূর্ণ হয়।” (বাইবেল,হবাক্কূক ৩:৩)

[1] পারাণ পর্বত ইশ্মায়েলের সাথে সম্পর্কযুক্ত। কারণ ইশ্মায়েল বা ইসমাইল আঃ পারাণ নামক মরুভূমিতে বসবাস করতেন
(আদিপুস্তক ২১:১৯-২১)। পারাণ দ্বারা মক্কাকে বোঝানো হয়েছে।
অর্থাৎ,ইশ্মায়েলের বংশ ও অঞ্চল থেকে একজন নবি আসবে। তিনিই হলেন মুহাম্মাদ (স)।

[2] এর থেকে আরো নিশ্চিত হওয়া যায় এখানে মুহাম্মাদ (স)এর কথাই বলা হয়েছে। মুহাম্মাদ (স) ১০০০০(দশ হাজার) সাহাবি নিয়ে মক্কা বিজয় করেন যা অত্যন্ত সুপ্রসিদ্ধ ঘটনা (সহিহ বুখারী(তাওহীদ)/হাদিস নং-৪২৭৬)।

ওল্ড টেস্টামেন্টের অন্যান্য পুস্তকগুলোতে মুহাম্মাদ (স):

পরমগীত ৫ঃ১০ ও ১৬
דודי צח ואדום דגול מרבבה
חכו ממתקים וכלו מחמדים זה דודי וזה רעי בנות ירושלם׃
অনুবাদ:-
আমার প্রিয়তম উজ্জ্বল ও বাদামি বর্ণের। সে ১০০০০(দশ হাজার) লোকের মধ্যে বিশিষ্ট [1].
তাঁর মুখ মিষ্টতায় পরিপূর্ণ। হ্যাঁ,অবশ্যই সে হলো মুহাম্মাদ [2].এই আমার প্রিয়তম,এই আমার বন্ধু,শোনো হে জেরুজালেমের কন্যারা।

[1] এখানেও আবার সেই ১০ হাজার!বারবার ১০ হাজার শব্দটি ব্যবহার করা মুহাম্মাদ(স)কেই নির্দেশ করছে।

কোথায় যাচ্ছেন? আরো নতুন কিছু জানার জন্য এই লেখাটি পড়ুনঃ   ব্যভিচার বিষয়ক আয়াত

[2] এখানে তো সরাসরি মুহাম্মাদ নামটিই ব্যবহৃত হয়েছে। হিব্রুতে শব্দটির উচ্চারণ হলো “মাহামাদ (מחמד)”, যা আরবিতে মুহাম্মাদ। অথচ খ্রিস্টান মিশনারিরা নামেরও অনুবাদ করে সত্যকে ধামাচাপা দিয়ে রাখে।

যীশাইয় ৪২:১-
הן עבדי אתמך בו בחירי רצתה נפשי נתתי רוחי עליו משפט לגוים יוציא
অনুবাদ:-
“সাবধান!আমার বান্দা,যাকে আমি তুলে ধরি [1] এবং আমার নির্বাচিত জন, যার মাঝে আমার আত্মা উদ্ভাসিত হয়! আমার উৎসাহ আমি তার মাঝে দেখেছি। সে সুবিচার নিয়ে আসবে।”

[1] প্রথম বাক্যের “সাবধান! আমার বান্দা, যাকে আমি তুলে ধরি এবং আমার নির্বাচিত জন” কথাটির “আমি তুলে ধরি”র হিব্রু শব্দ হচ্ছে “אתמך”(আতমাখ)। এই শব্দ বাইবেলের অন্য কোথাও আসে নি। মুসলিম গবেষকগণ এই আতমাখ(“אתמך”) শব্দের সাথে আরেকটি শব্দের লিখনীর অত্যন্ত মিল খুঁজে পান, যা হল “(אחמד) আহমাদ”।

আর আমরা সবাই জানি,আমাদের প্রিয় নবি মুহাম্মাদ (স) এর অপর একটি প্রধান নাম হলো “আহমাদ”। [কুরআন ৬১:৬,বুখারী: ৩৫৩২,৪৮৯৬, মুসলিম: ২৩৫৪, ২৩৫৫, তিরমিযী: ২৮৪০,ইবনে হিব্বান: ৬৩১৩,মুসনাদে আহমাদ: ৪/৮০,৪/৩৯৫, ৪০৪, ৪০৭]

হয়তো মুহাম্মাদ (স)এর ভবিষ্যৎবাণী ফাঁস হয়ে যাওয়ায় ইহুদি-খ্রিষ্টানরা মূলত (אחמד/আহমাদ) শব্দটির সূক্ষ্ম বিকৃতি করে তাকে (אתמך/আতমাখ) বানিয়ে দিয়েছে। একটু খেয়াল করে তীক্ষ্ণ দৃষ্টি দিয়ে একবার দেখুন, אחמד ও אתמך এর মাঝে খুব সূক্ষ্ম পার্থক্যই বিদ্যমান।
তারা এখানেও একই কাজ করেছে যেমনটা করেছে আদিপুস্তক ২২অধ্যায় :১-২,১২ ও ১৬ আয়াতে। এখানে ইব্রাহিম (আ) এর তাঁর পুত্রকে কুরবানির বিবরণ উল্লেখ করা হয়েছে। উক্ত আয়াতগুলোতে তারা ইব্রাহিম (আ) এর “একমাত্র পুত্র ইশ্মায়েল” নামটা কেটে দিয়ে ইসহাক (আ) ও ইহুদি জাতির মর্যাদা বাড়াতে “একমাত্র পুত্র ইসহাক” নামটা বসিয়েছে। এটা করতে গিয়েও তারা ফেঁসে গেছে। কারণ ইসহাক কোনোকালেই ইব্রাহিম(আ)এর একমাত্র পুত্র ছিলেন না। বরং ইসহাক জন্মানোর ১৪ বছর আগ পর্যন্ত ইশ্মায়েলই বা ইব্রাহিম(আ)এর একমাত্র পুত্র ছিলেন। যখন তারা “ইশ্মায়েল” নাম কেটে “ইসহাক” নাম বসাতে পেরেছে তখন তো যীশাইয় ৪২:১ এ אחמד নামের সূক্ষ্ম বিকৃতি সাধন করে তাকে אתמך বানিয়ে দেওয়াটা মোটেও অস্বাভাবিক কোনো ব্যাপার নয়! তাদের বিকৃতিকে আরো নিশ্চিত করে বাইবেলের প্রাচীন স্ক্রল ও পান্ডুলিপিগুলো। বাইবেলের অত্যন্ত প্রাচীন ডেড সি স্ক্রলে উক্ত আয়াতে “আহমদ” নামটিই খুঁজে পাওয়া গেছে। আতমাখ নয়।

কোথায় যাচ্ছেন? আরো নতুন কিছু জানার জন্য এই লেখাটি পড়ুনঃ   শিরক

যীশাইয় ৪২:১ এ “আহমাদ” ধরে অনুবাদ করলে হবে-
“সাবধান! আমার বান্দা আহমাদ ও আমার নির্বাচিতজন”।

MuslimPoint Organization

About MuslimPoint Organization

MuslimPoint একটি অনলাইন ভিত্তিক ইসলামী প্রশ্নোত্তর, গ্রন্থাগার, ব্লগিং, কুরআন, হাদিস, কুইজ এবং বিষয় ভিত্তিক রেফারেন্স প্ল্যাটফর্ম।

View all posts by MuslimPoint Organization →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *