আসসালামু আলাইকুম । এখানে রেজিস্ট্রেশন না করেই অংশগ্রহণ/ব্যবহার করতে পারবেন কিন্তু সর্বোচ্চ সুবিধার জন্য বিনামূল্যে রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন !
0 votes
136 views
in ব্যবসায়িক by (55 points)

১/মূল্য, বা পরিশোধের সময় নির্ধারণ না করে কোন বস্তু বা সেবা গ্রহণ করলে সেটার মূল্য পরিশোধের শরয়ী নির্দেশনা কী? বস্তু বা সেবাটি গ্রহণের সময় যে মূল্য সেটা দিলে হবে, নাকি পরিশোধের সময় বিক্রেতা যেটা বলবে সেটা দিতে হবে?


এক্ষেত্রে মূল্য পরিশোধের আগ পর্যন্ত উক্ত বস্তু বা সেবা লব্ধ সুবিধা কি জায়েজ হবে, নাকি নাজায়েজ হবে?


২/ একটি চিঠি পোস্ট করতে গিয়ে পোস্টঅফিসে না-জেনে কিছু গাম অপচয় করে ফেলি। এটার দায়মুক্ত কীভাবে হতে পারি?আর সরকারকে সরাসরি সেভাবে ক্ষতিপূরণ দেওয়ারও কোন ব্যবস্থা নেই যতটুকু বুঝি। এখন কী দায়মুক্তির নিয়্যাতে মিসকিনকে দান করার মাধ্যমে সম্পূর্ণ দায়মুক্ত হতে পারবো



1 Answer

0 votes
by (1.9k points)
আপনার প্রথম প্রশ্নের উত্তরঃ

এভাবে ক্রয় বিক্রয় করা শরীয়ত সম্মত নয়। অবশ্যই বাকিতে ক্রয় বিক্রয় করার সময় চুক্তি করে নিদিষ্ট দাম নির্দিষ্ট ও নির্দিষ্ট সময় নির্ধারণ করে ক্রয় বিক্রয় করা উচিত। তবে নগদে কম মূল্যে আর বাকিতে বেশি মূল্যে ক্রেতা-বিক্রেতার সম্মতিতে পণ্য ক্রয়-বিক্রয় করা যায়। তবে এর জন্য মূল্য পরিশোধের সময় নির্ধারিত হতে হবে।

ইবনু আব্বাস (রাযিয়াল্লাহু আনহুমা) হতে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ (ছাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) যখন মদীনায় পদার্পণ করলেন, তখন মদীনাবাসীগণ এক, দুই এবং তিন বছরের মেয়াদে বিভিন্ন রকমের ফল ক্রয়-বিক্রয় করতো। তিনি বললেন, ‘যে ব্যক্তি অগ্রিম ক্রয়-বিক্রয় করবে, তার উচিত অগ্রিম দেওয়া নির্ধারিত পরিমাপে এবং নির্ধারিত মেয়াদ পর্যন্ত (ছহীহ বুখারী, হা/২২৩৯; মিশকাত, হা/২৮৮৩)।

ইক্বরিমা (রাযিয়াল্লাহু আনহু) হতে বর্ণিত, ইবনু আব্বাস (রাযিয়াল্লাহু আনহুমা) বলেন, পণ্য ক্রয়-বিক্রয়ের ক্ষেত্রে এমন চুক্তিতে কোনো সমস্যা নেই যে, নগদ মূল্যে এত আর বাকি মূল্যে এত (মুসান্নাফ ইবনু আবি শায়বা, হা/২০৮২৬, ২০৮২৭)।

সুতরাং প্রশ্ন অনুযায়ী এক্ষেত্রে বিক্রেতার যে দাম চাইবে ক্রেতাকে সেটাই দিতে হবে তবে বিক্রেতার উচিত  বাজার দর অনুযায়ী দুপক্ষের সমঝতার  মাধ্যমে সঠিক দাম রাখা এবং জুলুম না করা।

আল্লাহু আলাম
...