দোয়া ও যিকির ( Dua and Zikir ) – ঘুম থেকে উঠে ঘুমাতে যাওয়া পর্যন্ত দোয়া ও যিকির সমূহ

সকল দোআ ও যিকির অর্থসহ অনুবাদ উচ্চারণ সহ হিসনুল মুসলিম zikir dua দো‘আ মোনাজাত হাত তুলে সালাত নামাজ Islamic and Quranic Duas in Arabic with Translation

এটা অবশ্যই মনে রাখবেন যে , কখনোই আরবি উচ্চারণ পুরোপুরি সঠিকভাবে বাংলাতে লিখে প্রকাশ করা সম্ভব নয় । এজন্য অবশ্যই আরবি উচ্চারণ আরবি দেখেই পড়ার চেষ্টা করবেন এবং সাথে যে অডিও দেয়া আছে সেটা থেকে সাহায্য নিবেন ইং-শা-আল্লাহ । যদি কেউ একান্তই না পারেন তাহলে তাদের জন্য বাংলায় উচ্চারণ দেওয়া আছে , তবে যারা বাংলা উচ্চারণ দেখে দোয়া গুলো মুখস্থ করবেন , তারা অবশ্যই মুখস্ত করার পরে  , এখানে যে অডিও দেওয়া আছে সেটা শুনে বা পরিচিত অন্য কারোর কাছ থেকে ( যে আরবি জানে ) নিশ্চিত হয়ে নিবেন যে আপনার উচ্চারণ সঠিক হচ্ছে কিনা ।

ঘুম থেকে জেগে দোয়া ও যিকির – ১

আরবি :

أَلْحَمْدُ لِلّٰهِ الَّذِيْ أَحْيَانَا بَعْدَ مَا أَمَاتَنَا، وَإِلَيْهِ النُّشُوْرُ

অনুবাদ :
সকল হামদ-প্রশংসা আল্লাহ্‌র জন্য, যিনি (নিদ্রারূপ) মৃত্যুর পর আমাদেরকে জীবিত করলেন, আর তাঁরই নিকট সকলের পুনরুত্থান

উচ্চারণ :
আলহামদু লিল্লা-হিল্লাযী আহ্ইয়া-না- বা‘দা মা- আমা-তানা- ওয়া ইলাইহিন্ নুশূর

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

ঘুম থেকে জেগে দোয়া ও যিকির – ২

আরবি :


لَا إِلٰهَ إِلاَّ اللّٰهُ وَحْدَهُ لَا شَرِيْكَ لَهُ، لَهُ الْمُلْكُ وَلَهُ الْحَمْدُ، وَهُوَ عَلَى كُلِّ شَيْءٍ قَدِيْرٌ، سُبْحَانَ اللّٰهِ، وَالْحَمْدُ لِلّٰهِ، وَلَا إِلٰهَ إِلَّا اللّٰهُ، وَاللّٰهُ أَكْبَرُ، وَلَا حَوْلَ وَلَا قُوَّةَ إِلَّا بِاللّٰهِ الْعَلِيِّ الْعَظِيْمِ، رَبِّ اغْفِرْ لِيْ

অনুবাদ :
একমাত্র আল্লাহ ছাড়া কোনো হক্ব বা সত্য ইলাহ নেই, তাঁর কোনো শরীক নেই; রাজত্ব তাঁরই, প্রশংসাও তাঁরই; আর তিনি সকল কিছুর ওপর ক্ষমতাবান। আল্লাহ পবিত্র-মহান। সকল হামদ-প্রশংসা আল্লাহ্‌র। আল্লাহ ছাড়া সত্য কোনো ইলাহ নেই। আল্লাহ সবচেয়ে বড়। সুউচ্চ সুমহান আল্লাহর সাহায্য ছাড়া (পাপ কাজ থেকে দূরে থাকার) কোনো উপায় এবং (সৎকাজ করার) কোনো শক্তি কারো নেই। হে রব্ব ! আমাকে ক্ষমা করুন

উচ্চারণ :
লা ইলা-হা ইল্লাল্লা-হু ওয়াহ্‌দাহূ লা- শারীকালাহূ, লাহুল মুলকু, ওয়ালাহুল হামদু, ওয়াহুয়া ‘আলা কুল্লি শায়ইন ক্বাদীর। সুবহা-নাল্লাহি, ওয়ালহামদু লিল্লাহি, ওয়া লা ইলা-হা ইল্লাল্লা-হু, ওয়াল্লা-হু আকবার, ওয়া লা- হাওলা ওয়ালা- কুওয়াতা ইল্লা- বিল্লা-হিল ‘আলিয়্যিল ‘আযীম, রাব্বিগফির লী

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

কাপড় পরিধানের দোয়া

আরবি :

اَلْحَمْدُ لِلّٰهِ الَّذِيْ كَسَانِيْ هٰذَا (الثَّوْبَ) وَرَزَقَنِيْهِ مِنْ غَيْرِ حَوْلٍ مِنِّيْ وَلَا قُوَّةٍ

অনুবাদ :
সকল হামদ-প্রশংসা আল্লাহ্‌র জন্য; যিনি আমাকে এ (কাপড়)টি পরিধান করিয়েছেন এবং আমার শক্তি-সামর্থ্য ছাড়াই তিনি আমাকে এটা দান করেছেন

উচ্চারণ :
আল্‌হামদু লিল্লা-হিল্লাযী কাসানী হা-যা (আসসাওবা) ওয়া রযাকানীহি মিন্ গইরি হাওলিম মিন্নী ওয়ালা কুওওয়াতিন

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

নতুন কাপড় পরিধানের দোয়া

আরবি :

اَللّٰهُمَّ لَكَ الْحَمْدُ أَنْتَ كَسَوْتَنِيْهِ، أَسْأَلُكَ مِنْ خَيْرِهِ وَخَيْرِ مَا صُنِعَ لَهُ، وَأَعُوْذُ بِكَ مِنْ شَرِّهِ وَشَرِّ مَا صُنِعَ لَهُ

অনুবাদ :
হে আল্লাহ্! আপনারই জন্য সকল হাম্‌দ-প্রশংসা। আপনিই এটি আমাকে পরিয়েছেন। আমি আপনার কাছে এর কল্যাণ ও এটি যে উদ্দেশ্যে তৈরি হয়েছে তার কল্যাণ প্রার্থনা করি। আর আমি এর অনিষ্ট এবং এটি যে জন্য তৈরি করা হয়েছে তার অনিষ্ট থেকে আপনার আশ্রয় চাই

উচ্চারণ :
আল্লা-হুম্মা লাকাল-হামদু আনতা কাসাওতানীহি। আসআলুকা মিন খইরিহি ওয়া খইরি মা সুনি‘আ লাহু। ওয়া আ‘ঊযু বিকা মিন শাররিহি ওয়া শাররি মা সুনি‘আ লাহু

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

কাপড় খুলে রাখার সময় দোয়া

আরবি :

بِسْمِ اللّٰهِ

অনুবাদ :
আল্লাহ্‌র নামে (কাপড় খুলে রাখলাম)

উচ্চারণ :
বিসমিল্লাহ

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

শৌচালয় বা পায়খানায় প্রবেশের দোয়া

আরবি :

بِسْمِ اللّٰهِ اَللّٰهُمَّ إِنِّيْ أَعُوْذُ بِكَ مِنَ الْخُبْثِ وَالْخَبَائِثِ

অনুবাদ :
আল্লাহ্‌র নামে , হে আল্লাহ! আমি আপনার নিকট অপবিত্র নর জিন ও নারী জিন থেকে আশ্রয় চাই

উচ্চারণ :
বিসমিল্লাহি , আল্লা-হুম্মা ইন্নী আ‘ঊযু বিকা মিনাল খুব্‌সি ওয়াল খাবা-ইসি

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

শৌচালয় বা পায়খানা থেকে বের হওয়ার দোয়া

আরবি :

غُفْرَانَكَ

অনুবাদ :
আমি আপনার (আল্লাহর) কাছে ক্ষমাপ্রার্থী।

উচ্চারণ :
গুফরা-নাকা

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

ওযুর আগে দোয়া

আরবি :

بِسْمِ اللّٰهِ

অনুবাদ :
আল্লাহ্‌র নামে ( ওযু শুরু করলাম )

উচ্চারণ :
বিসমিল্লাহ

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

ওযু শেষ করার পর দোয়া

আরবি :

أَشْهَدُ أَنْ لَا إِلٰهَ إِلَّا اللّٰهُ وَحْدَهُ لَا شَرِيْكَ لَهُ وَأَشْهَدُ أَنَّ مُحَمَّدًا عَبْدُهُ وَرَسُوْلُهُ

অনুবাদ :
আমি সাক্ষ্য দিচ্ছি যে, একমাত্র আল্লাহ ছাড়া কোনো হক্ব বা সত্য ইলাহ নেই, তাঁর কোনো শরীক বা অংশীদার নেই। আমি আরও সাক্ষ্য দিচ্ছি যে, মুহাম্মাদ তাঁর বান্দা ও রাসূল

উচ্চারণ :
আশ্‌হাদু আল্লা-ইলাহা ইল্লাল্লাহু ওয়াহ্‌দাহু লা- শারীকা লাহূ ওয়া আশহাদু আন্না মুহাম্মাদান ‘আব্দুহূ ওয়া রাসূলুহূ

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

বাড়ি থেকে বের হওয়ার সময়ের দোয়া

আরবি :

بِسْمِ اللّٰهِ، تَوَكَّلْتُ عَلَى اللّٰهِ، وَلَا حَوْلَ وَلَا قُوَّةَ إِلَّا بِاللّٰهِ

অনুবাদ :
আল্লাহ্‌র নামে (বাড়ি থেকে বের হচ্ছি)। আল্লাহর উপর ভরসা করলাম। আর আল্লাহর সাহায্য ছাড়া (পাপ কাজ থেকে দূরে থাকার) কোনো উপায় এবং (সৎকাজ করার) কোনো শক্তি কারো নেই

উচ্চারণ :
বিসমিল্লাহি, তাওয়াককালতু ‘আলাল্লা-হি, ওয়ালা হাওলা ওয়ালা কুওয়াতা ইল্লা বিল্লাহ

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

বাড়িতে প্রবেশের সময়ের দোয়া

আরবি :

بِسْمِ اللّٰهِ وَلَجْنَا، وَبِسْمِ اللّٰهِ خَرَجْنَا، وَعَلَى اللّٰهِ رَبِّنَا تَوَكَّلْنَا

অনুবাদ :
আল্লাহ্‌র নামে আমরা প্রবেশ (বাড়িতে) করলাম, আল্লাহ্‌র নামেই আমরা বের হলাম (বাড়ি থেকে) এবং আমাদের রব আল্লাহ্‌র উপরই আমরা ভরসা করলাম

উচ্চারণ :
বিসমিল্লাহি ওয়ালাজনা, ওয়াবিস্‌মিল্লাহি খারাজনা, ওয়া ‘আলাল্লাহি রাব্বিনা তাওয়াক্কালনা

[ অতঃপর ঘরের লোকজনকে সালাম দিবে । যদি ঘরে বা বাড়িতে কেউ না থাকে তাহলেও সালাম দিয়েই ঢুকবে .]

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

মসজিদে প্রবেশের সময়ের দোয়া

[যখন তুমি মসজিদে প্রবেশ করবে, তখন তোমার ডান পা দিয়ে ঢুকবে, আর যখন বের হবে, তখন বাম পা দিয়ে বের হবে .]

আরবি :

اَللّٰهُمَّ افْتَحْ لِيْ أَبْوَابَ رَحْمَتِكَ

অনুবাদ :
হে আল্লাহ! আপনি আমার জন্য আপনার রহমতের দরজাসমূহ খুলে দিন।

উচ্চারণ :
আল্লা-হুম্মাফ্‌তাহ লী আবওয়া-বা রাহ্‌মাতিকা

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

মসজিদে থেকে বের হওয়ার সময়ের দোয়া

[যখন তুমি মসজিদে প্রবেশ করবে, তখন তোমার ডান পা দিয়ে ঢুকবে, আর যখন বের হবে, তখন বাম পা দিয়ে বের হবে .]

আরবি :

اَللّٰهُمَّ إِنِّيْ أَسْأَلُكَ مِنْ فَضْلِكَ

অনুবাদ :
হে আল্লাহ! আপনি আমার গুনাসমূহ মাফ করে দিন বা আমি তোমার অনুগ্রহ প্রার্থনা করছি

উচ্চারণ :
আল্লা-হুম্মা ইন্নী আসআলুকা মিন ফাদ্বলিকা

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

আযানের জবাব বা উত্তর

[ আজানের জবাব বা উত্তর দেয়ার নিয়ম হলো, মুয়াজ্জিন যা যা বলবে , আপনিও ঠিক ঠিক তাই তাই বলবেন , শুধুমাত্র “হাইয়্যা ‘আলাস্‌সালাহ, হাইয়্যা ‘আলাল ফালাহ’” , এই দুই বাক্যের সময় বলবেন “লা-হাওলা ওয়ালা ক্বুওয়াতা ইল্লা বিল্লা-হ” ]

তাহলে মুয়াজ্জিন “হাইয়্যা ‘আলাস্‌সালাহ, হাইয়্যা ‘আলাল ফালাহ’” বলার পরে আপনি বলবেন :

আরবি :
لاَ حَوْلَ وَلاَ قُوَّةَ إِلَّا بِاللّٰهِ

অনুবাদ :
একমাত্র আল্লাহর সাহায্য ছাড়া (পাপ কাজ থেকে দূরে থাকার) কোনো উপায় এবং (সৎকাজ করার) কোনো শক্তি কারো নেই ।

উচ্চারণ :
লা-হাওলা ওয়ালা ক্বুওয়াতা ইল্লা বিল্লা-হ

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

আযানের শেষে যে দোয়া বলবে

[ আযান শেষে তিনটি দোয়া বা যিকির পড়তে হয় , এগুলো পর্যায়ক্রমে নিচে নাম্বারিং করে দেওয়া হলো । নাম্বারিং করার কারণ হলো , কমপক্ষে ২ নাম্বার দোয়া বা যিকিরটা (আল্লা-হুম্মা রববা হা-যিহিদ্…) সবাই মুখস্থ করবে ও নিয়মিত আযান শেষে পড়বে । ]

১) প্রথমে দুরুদে ইব্রাহীম পড়বে

আরবি :
اَللّٰهُمَّ صَلِّ عَلَى مُحَمَّدٍ، وَعَلَى آلِ مُحَمَّدٍ، كَمَا صَلَّيتَ عَلَى إِبْرَاهِيمَ، وَعَلَى آلِ إِبْرَاهِيْمَ، إِنَّكَ حَمِيْدٌ مَجِيْدٌ، اَللّٰهُمَّ بَارِكْ عَلَى مُحَمَّدٍ وَعَلَى آلِ مُحَمَّدٍ، كَمَا بَارَكْتَ عَلَى إِبْرَاهِيمَ وَعَلَى آلِ إِبْرَاهِيمَ، إِنَّكَ حَمِيْدٌ مَجِيْدٌ

অনুবাদ :
হে আল্লাহ! আপনি (আপনার নিকটস্থ উচ্চসভায়) মুহাম্মাদকে সম্মানের সাথে স্মরণ করুন এবং তাঁর পরিবার-পরিজনকে, যেমন আপনি সম্মানের সাথে স্মরণ করেছেন ইবরাহীমকে ও তাঁর পরিবার-পরিজনদেরকে। নিশ্চয় আপনি অত্যন্ত প্রশংসিত ও মহামহিমান্বিত। হে আল্লাহ! আপনি মুহাম্মাদ ও তাঁর পরিবার পরিজনের উপর বরকত নাযিল করুন যেমন আপনি বরকত নাযিল করেছিলেন ইবরাহীম ও তাঁর পরিবার-পরিজনের উপর। নিশ্চয় আপনি অত্যন্ত প্রশংসিত ও মহামহিমান্বিত

উচ্চারণ :
আল্লা-হুম্মা সাল্লি ‘আলা মুহাম্মাদিউওয়া ‘আলা আ-লি মুহাম্মাদিন কামা সাল্লাইতা ‘আলা ইবরাহীমা ওয়া ‘আলা আ-লি ইব্রাহীমা ইন্নাকা হামীদুম মাজীদ। আল্লা-হুম্মা বারিক ‘আলা মুহাম্মাদিউওয়া ‘আলা আলি মুহাম্মাদিন, কামা বা-রাকতা ‘আলা ইব্রাহীমা ওয়া ‘আলা আ-লি ইব্রাহীমা ইন্নাকা হামীদুম্ মাজীদ

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

২) এরপর “আল্লা-হুম্মা রববা হা-যিহিদ্…” এই দোয়াটি পড়বে

আরবি :
اَللّٰهُمَّ رَبَّ هٰذِهِ الدَّعْوَةِ التَّامَّةِ، وَالصَّلَاةِ الْقَائِمَةِ، آتِ مُحَمَّدًا الْوَسِيْلَةَ وَالْفَضِيْلَةَ، وَابْعَثْهُ مَقَامًا مَحْمُوْدًا الَّذِيْ وَعَدتَّهُ

অনুবাদ :
হে আল্লাহ! এই পরিপূর্ণ আহ্বান এবং প্রতিষ্ঠিত সালাতের রব্ব! মুহাম্মাদ (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) কে ওসীলা তথা জান্নাতের একটি স্তর এবং ফযীলত তথা সকল সৃষ্টির উপর অতিরিক্ত মর্যাদা দান করুন। আর তাঁকে মাকামে মাহমূদে (প্রশংসিত স্থানে) পৌঁছে দিন, যার প্রতিশ্রুতি আপনি তাঁকে দিয়েছেন।

উচ্চারণ :
আল্লা-হুম্মা রববা হা-যিহিদ্ দা‘ওয়াতিত্ তা-ম্মাতি ওয়াস সালা-তিল ক্বা-’ইমাতি আ-তি মুহাম্মাদানিল ওয়াসীলাতা ওয়াল ফাদীলাতা ওয়াব্‘আছহু মাক্বা-মাম মাহমূদানিল্লাযী ওয়া‘আদতাহ

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

৩) এরপর “আশ্‌হাদু আল্লা ইলা-হা…” এই দোয়াটি পড়বে

আরবি :
أَشْهَدُ أَنْ لَا إِلٰهَ إِلَّا اللّٰهُ وَحْدَهُ لَا شَرِيْكَ لَهُ وَأَنَّ مُحَمَّدًا عَبْدُهُ وَرَسُولُهُ، رَضِيْتُ بِاللّٰهِ رَبًّا، وَبِمُحَمَّدٍ رَسُولًا، وَبِالْإِسْلَامِ دِيْنًا

অনুবাদ :
আমি সাক্ষ্য দিচ্ছি যে, একমাত্র আল্লাহ ছাড়া কোনো হক্ব বা সত্য ইলাহ নেই, তাঁর কোনো শরীক বা অংশীদার নেই। আমি আরো সাক্ষ্য দিচ্ছি যে, মুহাম্মাদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম তাঁর বান্দাহ ও রাসূল। আমি আল্লাহকে রব্ব, মুহাম্মাদ (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) কে রাসূল এবং ইসলামকে দীন হিসেবে গ্রহণ করে সন্তুষ্ট।

উচ্চারণ :
আশ্‌হাদু আল্লা ইলা-হা ইল্লাল্লা-হু ওয়াহ্‌দাহু লা শারীকা লাহু ওয়া আন্না মুহাম্মাদান ‘আবদুহূ ওয়া রাসূলুহু, রাদীতু বিল্লা-হি রব্‌বান, ওয়া বিমুহাম্মাদিন রাসূলান, ওয়া বিলইসলা-মি দীনান

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

ইকামতের জবাব বা উত্তর

 
[ আজানের জবাব বা উত্তর এর মতোই একইভাবে , ইকামতেও যা যা বলবে , আপনিও ঠিক তাই তাই বলবেন , শুধুমাত্র “হাইয়্যা ‘আলাস্‌সালাহ, হাইয়্যা ‘আলাল ফালাহ’” , এই দুই বাক্যের সময় বলবেন “লা-হাওলা ওয়ালা ক্বুওয়াতা ইল্লা বিল্লা-হ” । এটির আরবি , অনুবাদ ও উচ্চারণ উপরের “আযানের জবাব বা উত্তর” সেকশন থেকে দেখে নিন । ]

সালাতের শুরুতে দোয়া

[ প্রসঙ্গত উল্লেখ থাকে যে , “আল্লাহু আকবার” তাকবীর দেওয়ার পরে এই দোয়া পড়বে , তবে “আল্লাহু আকবার” এর আগে অন্য কোন নিয়্যাত (নাওয়াইতুয়ান উসাল্লিয়া লিল্লাহি তা’আলা..) বা দোয়া পড়তে হবে না । সরাসরি “আল্লাহু আকবার” বলবে ।  ]

আরবি :
سُبْحَانَكَ اللّٰهُمَّ وَبِحَمْدِكَ، وَتَبَارَكَ اسْمُكَ، وَتَعَالَى جَدُّكَ، وَلَا إِلٰهَ غَيْرُكَ

অনুবাদ :
হে আল্লাহ! আপনার প্রশংসাসহ আপনার পবিত্রতা ও মহিমা ঘোষণা করছি, আপনার নাম বড়ই বরকতময়, আপনার প্রতিপত্তি অতি উচ্চ। আর আপনি ব্যতীত অন্য কোনো হক্ব বা সত্য ইলাহ্‌ নেই।

উচ্চারণ :
সুবহা-নাকাল্লা-হুম্মা ওয়া বিহামদিকা ওয়া তাবা-রাকাসমুকা ওয়া তা‘আ-লা জাদ্দুকা ওয়া লা- ইলা-হা গাইরুকা

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

সালাতের শুরুতে দোয়া

[ প্রসঙ্গত উল্লেখ থাকে যে , “আল্লাহু আকবার” তাকবীর দেওয়ার পরে এই দোয়া পড়বে , তবে “আল্লাহু আকবার” এর আগে অন্য কোন নিয়্যাত (নাওয়াইতুয়ান উসাল্লিয়া লিল্লাহি তা’আলা..) বা দোয়া পড়তে হবে না । সরাসরি “আল্লাহু আকবার” বলবে ।  ]

আরবি :
سُبْحَانَكَ اللّٰهُمَّ وَبِحَمْدِكَ، وَتَبَارَكَ اسْمُكَ، وَتَعَالَى جَدُّكَ، وَلَا إِلٰهَ غَيْرُكَ

অনুবাদ :
হে আল্লাহ! আপনার প্রশংসাসহ আপনার পবিত্রতা ও মহিমা ঘোষণা করছি, আপনার নাম বড়ই বরকতময়, আপনার প্রতিপত্তি অতি উচ্চ। আর আপনি ব্যতীত অন্য কোনো হক্ব বা সত্য ইলাহ্‌ নেই।

উচ্চারণ :
সুবহা-নাকাল্লা-হুম্মা ওয়া বিহামদিকা ওয়া তাবা-রাকাসমুকা ওয়া তা‘আ-লা জাদ্দুকা ওয়া লা- ইলা-হা গাইরুকা

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

রুকূতে গিয়ে দোয়া

[ সর্বনিম্ন তিনবার বলবে , তবে এর বেশি যত ইচ্ছা ততোবার বলতে পারে । বেশি বললে , বিজোড় সংখ্যক বা গুনে গুনে বলার প্রয়োজন নাই । যত ইচ্ছা ততোবার বলতে পারে ।  ]

আরবি :
سُبْحَانَ رَبِّيَ الْعَظِيْمِ

অনুবাদ :
আমার মহান রবের পবিত্রতা ও মহিমা ঘোষণা করছি

উচ্চারণ :
সুবহা-না রব্বিয়াল ‘আযীম

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

রুকু থেকে উঠার দোয়া – ১

আরবি :

سَمِعَ اللّٰهُ لِمَنْ حَمِدَهُ

অনুবাদ :
যে আল্লাহর হামদ-প্রশংসা করে, আল্লাহ তার প্রশংসা শোনেন (কবুল করুন)
উচ্চারণ :
সামি‘আল্লা-হু লিমান হামিদাহ

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

রুকু থেকে উঠার দোয়া – ২

আরবি :
اَللّهُمَّ رَبَّنَا لَكَ الْحَمْد

অনুবাদ :
যে আল্লাহর হামদ-প্রশংসা করে, আল্লাহ তার প্রশংসা শোনেন (কবুল করুন)
উচ্চারণ :
আল্লাহুম্মা রাব্বানা লাকাল হামদ।

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

কুনুতে রাতিবা বা বিত্‌রের কুনুতের দোয়া

আরবি :

اَللّٰهُمَّ اهْدِنِيْ فِيْمَنْ هَدَيْتَ، وَعَافِنِيْ فِيْمَنْ عَافَيْتَ، وَتَوَلَّنِيْ فِيْمَنْ تَوَلَّيْتَ، وَبَارِكْ لِيْ فِيْمَا أَعْطَيْتَ، وَقِنِيْ شَرَّ مَا قَضَيْتَ

অনুবাদ :
হে আল্লাহ! আপনি যাদেরকে হেদায়াত করেছেন তাদের মধ্যে আমাকেও হেদায়াত দিন, আপনি যাদেরকে নিরাপত্তা প্রদান করেছেন তাদের মধ্যে আমাকেও নিরাপত্তা দিন, আপনি যাদের অভিভাবকত্ব গ্রহণ করেছেন, তাদের মধ্যে আমার অভিভাবকত্বও গ্রহণ করুন, আপনি আমাকে যা দিয়েছেন তাতে বরকত দিন। আপনি যা ফয়সালা করেছেন তার অকল্যাণ থেকে আমাকে রক্ষা করুন।
উচ্চারণ :
আল্লা-হুম্মাহদিনী ফীমান হাদাইতা ওয়া ‘আ-ফিনী ফীমান ‘আ-ফাইতা ওয়া তাওয়াল্লানী ফীমান তাওয়াল্লাইতা ওয়াবা-রিক লী ফীমা আ‘ত্বাইতা ওয়াক্বিনী শাররা মা ক্বাদাইতা
আরবি :

فَإِنَّكَ تَقْضِيْ وَلاَ يُقْضٰى عَلَيْكَ، إِنَّهُ لَا يَذِلُّ مَنْ وَالَيْتَ، (وَلَا يَعِزُّ مَنْ عَادَيْتَ) تَبَارَكْتَ رَبَّنا وَتَعَالَيْتَ

অনুবাদ :
কারণ আপনিই চুড়ান্ত ফয়সালা দেন, আপনার বিপরীতে ফয়সালা দেওয়া হয় না। আপনি যার সাথে বন্ধুত্ব করেছেন সে অবশ্যই অপমানিত হয় না [এবং আপনি যার সাথে শত্রুতা করেছেন সে সম্মানিত হয় না] আপনি বরকতপূর্ণ হে আমাদের রব্ব! আর আপনি সুউচ্চ-সুমহান
উচ্চারণ :
ফাইন্নাকা তাক্ব‌দ্বী ওয়ালা ইউক্ব্‌দ্বা ‘আলাইকা। ইন্নাহু লা ইয়াযিল্লু মাও ওয়া-লাইতা, [ওয়ালা ইয়া‘ইয্যু মান ‘আ-দাইতা] তাবা-রক্‌তা রব্বানা ওয়া তা‘আ-লাইতা

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

সিজদার গিয়ে দোয়া

[ সর্বনিম্ন তিনবার বলবে , তবে এর বেশি যত ইচ্ছা ততোবার বলতে পারে । বেশি বললে , বিজোড় সংখ্যক বা গুনে গুনে বলার প্রয়োজন নাই । যত ইচ্ছা ততোবার বলতে পারে । ]

আরবি :
سُبْحَانَ رَبِّيَ الأَعْلَى

অনুবাদ :
আমার রব্বের পবিত্রতা ও মহিমা বর্ণনা করছি, যিনি সবার উপরে।

উচ্চারণ :
সুবহা-না রব্বিয়াল আ‘লা

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

লাইলাতুল ক্বদরে বা সিজদায় গিয়ে দোয়া

আরবি :
اَللّٰهُمَّ إِنَّكَ عَفُوٌّ تُحِبُّ الْعَفْوَ فَاعْفُ عَنِّيْ

অনুবাদ :
হে আল্লাহ, আপনি ক্ষমাশীল (উদার), আপনি ক্ষমা করতে ভালবাসেন, আপনি আমাকে ক্ষমা করুন।
উচ্চারণ :
আল্লা-হুম্মা, ইন্নাকা ‘আফুওউন্ তুহিব্বুল ‘আফ্ওয়া ফা‘অ্ফু ‘আন্নী।

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

দুই সিজদার মধ্যবর্তী বৈঠকের দোয়া- ১

আরবি :
رَبِّ اغْفِرْ لِيْ، رَبِّ اغْفِرْ لِيْ

অনুবাদ :
হে আমার রব্ব! আপনি আমাকে ক্ষমা করুন। হে আমার রব্ব! আপনি আমাকে ক্ষমা করুন।

উচ্চারণ :
রব্বিগফির লী, রব্বিগফির লী

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

দুই সিজদার মধ্যবর্তী বৈঠকের দোয়া- ২

আরবি :
اَللّٰهُمَّ اغْفِرْ لِيْ، وَارْحَمْنِيْ، وَاهْدِنِيْ، وَعَافِنِيْ، وَارْزُقْنِيْ

অনুবাদ :
হে আল্লাহ! আপনি আমাকে ক্ষমা করুন, আমার প্রতি দয়া করুন, আমাকে সঠিক পথে পরিচালিত করুন, আমাকে নিরাপত্তা দান করুন, আমাকে রিযিক দান করুন

উচ্চারণ :
আল্লা-হুম্মাগফির লী, ওয়ারহামনী, ওয়াহদিনী, ওয়া‘আফিনি, ওয়ারযুক্বনী

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

শেষ বৈঠকে বসে , সালাম ফিরানোর আগের দোয়া সমূহ

[ শেষ বৈঠকে বসে অনেক দোয়া করা যায় , হাদিসে বর্ণিত দোয়া বা কুরআনের আয়াত দিয়েও শেষ বৈঠকে বসে দোয়া করা যায় । নিন্মে কিছু গুরুত্বপূর্ণ দোয়া পর্যায়ক্রমে দেওয়া হলো । ]

সালাম ফিরানোর আগের দোয়া সমূহ – ১ ( তাশাহ্‌হুদ )

আরবি :
أَلتَّحِيَّاتُ لِلّٰهِ، وَالصَّلَوَاتُ، وَالطَّيِّبَاتُ، اَلسَّلَامُ عَلَيْكَ أَيُّهَا النَّبِيُّ وَرَحْمَةُ اللّٰهِ وَبَرَكَاتُهُ، اَلسَّلَامُ عَلَيْنَا وَعَلَى عِبَادِ اللّٰهِ الصَّالِحِيْنَ، أَشْهَدُ أَنْ لَا إِلٰهَ إِلَّا اللّٰهُ وَأَشْهَدُ أَنَّ مُحَمَّدًا عَبْدُهُ وَرَسُوْلُهُ

অনুবাদ :
যাবতীয় অভিবাদন আল্লাহ্‌র জন্য, অনুরূপভাবে সকল সালাত ও পবিত্র কাজও। হে নবী! আপনার উপর বর্ষিত হোক সালাম, আল্লাহর রহমত ও বরকতসমূহ। আমাদের উপর এবং আল্লাহ্‌র সৎ বান্দাদের উপরও বর্ষিত হোক সালাম। আমি সাক্ষ্য দিচ্ছি যে, আল্লাহ ছাড়া কোনো হক্ব বা সত্য ইলাহ নেই এবং আমি আরও সাক্ষ্য দিচ্ছি যে, মুহাম্মদ (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) আল্লাহ্‌র বান্দা ও রাসূল

উচ্চারণ :
আত্তাহিয়্যা-তু লিল্লা-হি ওয়াস্‌সালাওয়া-তু ওয়াত্তায়্যিবা-তু আস্‌সালা-মু ‘আলাইকা আইয়্যূহান নাবিয়্যূ ওয়া রাহমাতুল্লা-হি ওয়া বারাকা-তুহু। আস্‌সালা-মু ‘আলাইনা ওয়া ‘আলা ‘ইবাদিল্লা-হিস সা-লেহীন। আশহাদু আল্লা-ইলা-হা ইল্লাল্লা-হু ওয়া আশহাদু আন্না মুহাম্মাদান ‘আব্দুহু ওয়া রাসূলুহু

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

সালাম ফিরানোর আগের দোয়া সমূহ – ২ ( দুরুদে ইব্রাহীম )

আরবি :
اَللّٰهُمَّ صَلِّ عَلَى مُحَمَّدٍ، وَعَلَى آلِ مُحَمَّدٍ، كَمَا صَلَّيتَ عَلَى إِبْرَاهِيمَ، وَعَلَى آلِ إِبْرَاهِيْمَ، إِنَّكَ حَمِيْدٌ مَجِيْدٌ، اَللّٰهُمَّ بَارِكْ عَلَى مُحَمَّدٍ وَعَلَى آلِ مُحَمَّدٍ، كَمَا بَارَكْتَ عَلَى إِبْرَاهِيمَ وَعَلَى آلِ إِبْرَاهِيمَ، إِنَّكَ حَمِيْدٌ مَجِيْدٌ

অনুবাদ :
হে আল্লাহ! আপনি (আপনার নিকটস্থ উচ্চসভায়) মুহাম্মাদকে সম্মানের সাথে স্মরণ করুন এবং তাঁর পরিবার-পরিজনকে, যেমন আপনি সম্মানের সাথে স্মরণ করেছেন ইবরাহীমকে ও তাঁর পরিবার-পরিজনদেরকে। নিশ্চয় আপনি অত্যন্ত প্রশংসিত ও মহামহিমান্বিত। হে আল্লাহ! আপনি মুহাম্মাদ ও তাঁর পরিবার পরিজনের উপর বরকত নাযিল করুন যেমন আপনি বরকত নাযিল করেছিলেন ইবরাহীম ও তাঁর পরিবার-পরিজনের উপর। নিশ্চয় আপনি অত্যন্ত প্রশংসিত ও মহামহিমান্বিত

উচ্চারণ :
আল্লা-হুম্মা সাল্লি ‘আলা মুহাম্মাদিউওয়া ‘আলা আ-লি মুহাম্মাদিন কামা সাল্লাইতা ‘আলা ইবরাহীমা ওয়া ‘আলা আ-লি ইব্রাহীমা ইন্নাকা হামীদুম মাজীদ। আল্লা-হুম্মা বারিক ‘আলা মুহাম্মাদিউওয়া ‘আলা আলি মুহাম্মাদিন, কামা বা-রাকতা ‘আলা ইব্রাহীমা ওয়া ‘আলা আ-লি ইব্রাহীমা ইন্নাকা হামীদুম্ মাজীদ

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

সালাম ফিরানোর আগের দোয়া সমূহ – ৩ ( আল্লা-হুম্মা ইন্নী আ‘ঊযু বিকা মিন… )

আরবি :
اَللّٰهُمَّ إِنِّيْ أَعُوْذُ بِكَ مِنْ عَذَابِ الْقَبْرِ، وَأَعُوْذُ بِكَ مِنْ فِتْنَةِ الْمَسِيْحِ الدَّجَّالِ، وَأَعُوْذُ بِكَ مِنْ فِتْنَةِ الْمَحْـيَا وَالْمَمَاتِ. اَللّٰهُمَّ إِنِّيْ أَعُوْذُ بِكَ مِنَ الْمَأْثَمِ وَالْمَغْرَمِ

অনুবাদ :
হে আল্লাহ! আমি আপনার কাছে আশ্রয় চাই কবরের আযাব থেকে, আশ্রয় চাই মাসীহ দাজ্জালের ফিতনা থেকে এবং আশ্রয় চাই জীবন-মৃত্যুর ফিতনা থেকে। হে আল্লাহ! আমি আপনার কাছে আশ্রয় চাই পাপাচার ও ঋণের বোঝা থেকে
উচ্চারণ :
আল্লা-হুম্মা ইন্নী আ‘উযু বিকা মিন আযা-বিল ক্বাবরি, ওয়া আ‘উযু বিকা মিন ফিতনাতিল মাসীহিদ্ দাজ্জা-লি, ওয়া আ‘উযু বিকা মিন ফিতনাতিল মাহইয়া ওয়াল মামা-ত। আল্লা-হুম্মা ইন্নী আ‘উযু বিকা মিনাল মা’ছামি ওয়াল মাগরামি

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

সালাম ফিরানোর আগের দোয়া সমূহ- ৪ ( আল্লা-হুম্মা ইন্নী যলামতু… )

আরবি :
اَللّٰهُمَّ إِنِّيْ ظَلَمْتُ نَفْسِيْ ظُلْمًا كَثِيرًا، وَلَا يَغْفِرُ الذُّنُوْبَ إِلَّا أَنْتَ، فَاغْفِرْ لِيْ مَغْفِرَةً مِّنْ عِنْدِكَ وَارْحَمْنِيْ، إِنَّكَ أَنْتَ الْغَفُوْرُ الرَّحِيْمُ

অনুবাদ :
হে আল্লাহ! আমি আমার নিজের উপর অনেক যুলুম করেছি। আর আপনি ছাড়া গুনাহসমূহ কেউই ক্ষমা করতে পারে না। অতএব আমাকে আপনার পক্ষ থেকে বিশেষ ক্ষমা দ্বারা মাফ করে দিন, আর আমার প্রতি দয়া করুন; আপনিই তো ক্ষমাকারী, পরম দয়ালু

উচ্চারণ :
আল্লা-হুম্মা ইন্নী যলামতু নাফসী যুলমান কাসীরা। ওয়ালা ইয়াগফিরুয্ যুনূবা ইল্লা আনতা। ফাগফির লী মাগফিরাতাম মিন ‘ইনদিকা ওয়ারহামনী ইন্নাকা আনতাল গাফূরুর রাহীম

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

সালাম ফিরানোর আগের দোয়া সমূহ – ৫ ( আল্লা-হুম্মাগফিরলী মা ক্বাদ্দামতু… )

আরবি :
اَللّٰهُمَّ اغْفِرْ لِيْ مَا قَدَّمْتُ، وَمَا أَخَّرْتُ، وَمَا أَسْرَرْتُ، وَمَا أَعْلَنْتُ، وَمَا أَسْرَفْتُ، وَمَا أَنْتَ أَعْلَمُ بِهِ مِنِّيْ، أَنْتَ الْمُقَدِّمُ، وَأَنْتَ الْمُؤَخِّرُ لَا إِلٰهَ إِلَّا أَنْتَ

অনুবাদ :
হে আল্লাহ! ক্ষমা করে দিন আমার গুনাহসমূহ— যা পূর্বে করেছি, যা পরে করেছি, যা আমি গোপন করেছি, যা প্রকাশ্যে করেছি, যা সীমালঙ্ঘন করে করেছি, আর যা আপনি আমার চেয়ে বেশি জানেন। আপনিই (কাউকে) করেন অগ্রগামী, আর আপনিই (কাউকে) করেন পশ্চাদগামী, আপনি ব্যতীত আর কোনো হক্ব ইলাহ নেই।

উচ্চারণ :
আল্লা-হুম্মাগফিরলী মা ক্বাদ্দামতু ওয়া মা আখ্‌খারতু ওয়া মা আসরারতু ওয়া মা আ’লান্তু ওয়া মা আসরাফ্‌তু ওয়া মা আনতা আল’লামু বিহী মিন্নী। আনতাল মুকাদ্দিমু ওয়া আনতাল মুআখখিরু লা ইলাহা ইল্লা আনতা

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

সালাম ফিরানোর আগের দোয়া সমূহ – ৬ ( আল্লা-হুম্মা আ‘ইন্নী… )

আরবি :
اَللّٰهُمَّ أَعِنِّيْ عَلَى ذِكْرِكَ، وَشُكْرِكَ، وَحُسْنِ عِبَادَتِكَ

অনুবাদ :
হে আল্লাহ! আপনার যিক্‌র করতে, আপনার শুকরিয়া জ্ঞাপন করতে এবং সুন্দরভাবে আপনার ইবাদত করতে আমাকে সাহায্য করুন

উচ্চারণ :
আল্লা-হুম্মা আ‘ইন্নী ‘আলা যিকরিকা ও শুকরিকা ওয়াহুসনি ইবা-দাতিকা

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

সালাম ফিরানোর আগের দোয়া সমূহ – ৭ ( আল্লা-হুম্মা ইন্নী আ‘উযু বিকা মিনাল বুখলি… )

আরবি :
اَللّٰهُمَّ إِنِّيْ أَعُوْذُ بِكَ مِنَ الْبُخْلِ، وَأَعُوْذُ بِكَ مِنَ الْجُبْنِ، وَأَعُوْذُ بِكَ مِنْ أَنْ أُرَدَّ إِلَى أَرْذَلِ الْعُمُرِ، وَأَعُوْذُ بِكَ مِنْ فِتْنَةِ الدُّنْيَا وَعَذَابِ الْقَبْرِ

অনুবাদ :
হে আল্লাহ! আমি আপনার আশ্রয় চাই কৃপণতা থেকে, আপনার আশ্রয় চাই কাপুরুষতা থেকে, আপনার আশ্রয় চাই চরম বার্ধক্যে উপনীত হওয়া থেকে, আর আপনার আশ্রয় চাই দুনিয়ার ফিতনা ও কবরের আযাব থেকে

উচ্চারণ :
আল্লা-হুম্মা ইন্নী আ‘উযু বিকা মিনাল বুখলি, ওয়া ‘আউযু বিকা মিনাল জুবনি, ওয়া আ‘উযু বিকা মিন আন উরাদ্দা ইলা আরযালিল্ ‘উমুরি, ওয়া আ‘ঊযু বিকা মিন্ ফিতনাতিদ দুনইয়া ও আযা-বিল ক্বাবরি

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

সালাম ফিরানোর আগের দোয়া সমূহ – ৮ ( আল্লা-হুম্মা ইন্নী আসআলুকাল… )

আরবি :
اَللّٰهُمَّ إِنِّيْ أَسْأَلُكَ الْجَنَّةَ وَأَعُوْذُ بِكَ مِنَ النَّارِ

অনুবাদ :
হে আল্লাহ! আমি আপনার কাছে জান্নাত চাই এবং জাহান্নাম থেকে আপনার কাছে আশ্রয় চাই

উচ্চারণ :
আল্লা-হুম্মা ইন্নী আসআলুকাল জান্নাতা ওয়া আ‘উযু বিকা মিনান্নার

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

সালাম ফিরানোর আগের দোয়া সমূহ – ৯ ( আল্লা-হুম্মা ইন্নী আসআলুকা… )

আরবি :
اَللّٰهُمَّ إِنِّيْ أَسْأَلُكَ بِأَنِّيْ أَشْهَدُ أَنَّكَ أَنْتَ اللّٰهُ لَا إِلٰهَ إِلَّا أَنْتَ الْأَحَدُ الصَّمَدُ الَّذِيْ لَمْ يَلِدْ وَلَمْ يُوْلَدْ وَلَمْ يَكُنْ لَّهُ كُفُوًا أَحَدٌ

অনুবাদ :
হে আল্লাহ! আমি আপনার কাছে চাই। কেননা, আমি সাক্ষ্য দেই যে, নিশ্চয় আপনিই আল্লাহ, আপনি ছাড়া আর কোনো হক্ব ইলাহ নেই; আপনি একক সত্তা, অমুখাপেক্ষী—সকল কিছু আপনার মুখাপেক্ষী, যিনি কাউকে জন্ম দেন নি এবং জন্ম নেনও নি। আর যাঁর সমকক্ষ কেউ নেই

উচ্চারণ :
আল্লা-হুম্মা ইন্নী আসআলুকা বিআন্নী আশ্‌হাদু আন্নাকা আনতাল্লা-হু লা ইলা-হা ইল্লা আনতাল আহাদুস সামাদুল্লাযী লাম ইয়ালিদ ওয়া লাম ইয়ূলাদ ওয়া লাম ইয়াকুল্লাহু কুফুওয়ান আহাদ

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

সালাম ফিরানোর পর দোয়া ও যিকির

[ সালাতে সালাম ফিরানোর পরে অনেক দোয়া করা যায় , হাদিসে বর্ণিত দোয়া বা কুরআনের আয়াত দিয়েও এই সময়ে দোয়া করা যায় । নিন্মে কিছু গুরুত্বপূর্ণ দোয়া পর্যায়ক্রমে দেওয়া হলো । ]

সালাম ফিরানোর পর দোয়া ও যিকির -১

[ সালাম ফিরানোর পরেই তিন বার “আস্তাগফিরুল্লা-হ” বলবে ]

আরবি :

أَسْتَغْفِرُ اللّٰهَ

অনুবাদ :
আমি আল্লাহ্‌র নিকট ক্ষমা প্রার্থনা করছি।
উচ্চারণ :
আস্তাগফিরুল্লা-হ

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

সালাম ফিরানোর পর দোয়া ও যিকির -২

আরবি :

اَللّٰهُمَّ أَنْتَ السَّلاَمُ، وَمِنْكَ السَّلاَمُ، تَبَارَكْتَ يَا ذَا الْجَلاَلِ وَالْإِكْرَامِ

অনুবাদ :
হে আল্লাহ! আপনি শান্তিময়। আপনার নিকট থেকেই শান্তি বর্ষিত হয়। আপনি বরকতময়, হে মহিমাময় ও সম্মানের অধিকারী!
উচ্চারণ :
আল্লা-হুম্মা আনতাস্ সালা-মু ওয়া মিনকাস্ সালা-মু তাবা-রক্তা ইয়া যালজালা-লি ওয়াল-ইকরা-ম

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

সালাম ফিরানোর পর দোয়া ও যিকির -৩

আরবি :

اَللّٰهُمَّ أَنْتَ السَّلاَمُ، وَمِنْكَ السَّلاَمُ، تَبَارَكْتَ يَا ذَا الْجَلاَلِ وَالْإِكْرَامِ

অনুবাদ :
হে আল্লাহ! আপনি শান্তিময়। আপনার নিকট থেকেই শান্তি বর্ষিত হয়। আপনি বরকতময়, হে মহিমাময় ও সম্মানের অধিকারী!
উচ্চারণ :
আল্লা-হুম্মা আনতাস্ সালা-মু ওয়া মিনকাস্ সালা-মু তাবা-রক্তা ইয়া যালজালা-লি ওয়াল-ইকরা-ম

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

সালাম ফিরানোর পর যে দোয়ায় বা যিকিরে সকল পাপ ক্ষমা করা হয়

[ এই দোয়ায় বা যিকিরে পাপরাশি ক্ষমা করে দেওয়া হয়, যদিও তা সমুদ্রের ফেনারাশির মত হয়]

[প্রথমে ৩৩ বার সুবহা-নাল্লাহ, ৩৩ বার আলহামদুলিল্লাহ , ৩৩ বার আল্লা-হু আকবার পড়বে । ৩৩ বার  না পারলেও কমপক্ষে ১০ বার পড়বে । এটাকে একসাথে একবাক্যে পড়তে চাইলে এভাবে পড়া যায় , “সুবহা-নাল্লাহি ওয়ালহামদুলিল্লাহ ওয়াল্লা-হু আকবার ” । এক বাক্যে পড়লে এই বাক্যটি ৩৩ বার পড়বে  বা ৩৩ বার  না পারলেও কমপক্ষে ১০ বার পড়বে । নিচে আরবি , অনুবাদ , উচ্চারণ দেওয়া হলো ]

আরবি :

سُبْحَانَ اللّٰهِ، وَالْحَمْدُ لِلّٰهِ، وَاللّٰهُ أَكْبَرُ

অনুবাদ :
আল্লাহ কতই না পবিত্র-মহান। সকল প্রশংসা আল্লাহ্‌র জন্য। আল্লাহ সবচেয়ে বড়।
উচ্চারণ :
সুবহা-নাল্লাহ, আলহামদুলিল্লাহ, আল্লা-হু আকবার

[ এর পর বলবে : ]

আরবি :

لَا إِلٰهَ إِلَّا اللّٰهُ وَحْدَهُ لَا شَرِيْكَ لَهُ، لَهُ الْمُلْكُ وَلَهُ الْحَمْدُ وَهُوَ عَلَى كُلِّ شَيْءٍ قَدِيْرٌ

অনুবাদ :
একমাত্র আল্লাহ ছাড়া কোনো হক্ব ইলাহ নেই, তাঁর কোনো শরীক নেই, রাজত্ব তাঁরই, সকল প্রশংসা তাঁরই এবং তিনি সবকিছুর উপর ক্ষমতাবান।
উচ্চারণ :
লা ইলা-হা ইল্লাল্লাহু ওয়াহদাহু লা শারীকা লাহু, লাহুল মুলকু ওয়ালাহুল হামদু ওয়াহুয়া ‘আলা কুল্লি শাই’ইন কাদীর
উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

সালাম ফিরানোর পর শেষ তিন সূরা পড়তে হয়

[ শুধুমাত্র ফজর ও মাগরিব সালাতের পর তিনবার করে আর বাকি সালাতের পর একবার করে , সূরা ইখলাস, সূরা আল-ফালাক ও সূরা আন-নাস পড়তে হয় ]

সূরা ইখলাস

আরবি :

بِسْمِ اللَّهِ الرَّحْمَٰنِ الرَّحِيمِ


قُلۡ هُوَ اللّٰهُ اَحَدٌ‌ ۚ‏﴿١﴾ اَللّٰهُ الصَّمَدُ‌ ۚ‏﴿٢﴾ لَمۡ يَلِدۡ ۙوَلَمۡ يُوۡلَدۡ ۙ‏﴿٣﴾ وَلَمۡ يَكُنۡ لَّهٗ كُفُوًا اَحَدٌ ﴿٤﴾‏‏ ‏

অনুবাদ :
রহমান, রহীম আল্লাহর নামে। বলুন, তিনি আল্লাহ্, এক-অদ্বিতীয়। আল্লাহ্ হচ্ছেন ‘সামাদ’ (তিনি কারো মুখাপেক্ষী নন, সকলেই তাঁর মুখাপেক্ষী)। তিনি কাউকেও জন্ম দেন নি এবং তাঁকেও জন্ম দেয়া হয় নি। আর তাঁর সমতুল্য কেউই নেই।
উচ্চারণ :
বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহীম। ক্বুল হুওয়াল্লা-হু আহাদ। আল্লাহুস্ সামাদ। লাম ইয়ালিদ ওয়া লাম ইউলাদ। ওয়া লাম ইয়াকুল্লাহু কুফুওয়ান আহাদ
উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

সূরা আল-ফালাক

আরবি :

بِسْمِ اللَّهِ الرَّحْمَٰنِ الرَّحِيمِ


قُلۡ اَعُوۡذُ بِرَبِّ الۡفَلَقِۙ‏ ﴿١﴾ مِنۡ شَرِّ مَا خَلَقَۙ‏ ﴿٢﴾ وَمِنۡ شَرِّ غَاسِقٍ اِذَا وَقَبَۙ‏ ﴿٣﴾ وَمِنۡ شَرِّ النَّفّٰثٰتِ فِى الۡعُقَدِۙ‏ ﴿٤﴾ وَمِنۡ شَرِّ حَاسِدٍ اِذَا حَسَدَ ﴿٥﴾

অনুবাদ :
রহমান, রহীম আল্লাহর নামে। বলুন, আমি আশ্রয় প্রার্থনা করছি ঊষার রবের। তিনি যা সৃষ্টি করেছেন তার অনিষ্ট হতে। ‘আর অনিষ্ট হতে রাতের অন্ধকারের, যখন তা গভীর হয়। আর অনিষ্ট হতে সমস্ত নারীদের, যারা গিরায় ফুঁক দেয়। আর অনিষ্ট হতে হিংসুকের, যখন সে হিংসা করে।
উচ্চারণ :
বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহীম। ক্বুল আ‘উযু বিরব্বিল ফালাক্ব। মিন শাররি মা খালাক্ব। ওয়া মিন শাররি গা-সিক্বিন ইযা ওয়াক্বাব। ওয়া মিন শাররিন নাফফা-সা-তি ফিল ‘উক্বাদ। ওয়া মিন শাররি হা-সিদিন ইযা হাসাদ
উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

সূরা আন-নাস,

আরবি :

بِسْمِ اللَّهِ الرَّحْمَٰنِ الرَّحِيمِ


قُلۡ اَعُوۡذُ بِرَبِّ النَّاسِۙ‏ ﴿١﴾ مَلِكِ النَّاسِۙ‏ ﴿٢﴾ اِلٰهِ النَّاسِۙ‏ ﴿٣﴾ مِنۡ شَرِّ الۡوَسۡوَاسِ ۙ الۡخَـنَّاسِ ۙ‏﴿٤﴾ الَّذِىۡ يُوَسۡوِسُ فِىۡ صُدُوۡرِ النَّاسِۙ‏ ﴿٥﴾ مِنَ الۡجِنَّةِ وَالنَّاسِ ﴿٦﴾

অনুবাদ :
রহমান, রহীম আল্লাহর নামে। বলুন, আমি আশ্রয় প্রার্থনা করছি মানুষের রবের, মানুষের অধিপতির, মানুষের ইলাহের কাছে, আত্মগোপনকারী কুমন্ত্রণাদাতার অনিষ্ট হতে; যে কুমন্ত্রণা দেয় মানুষের অন্তরে, জিনের মধ্য থেকে এবং মানুষের মধ্য থেকে।
উচ্চারণ :
বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহীম। ক্বুল ‘আউযু বিরাব্বিন্না-স। মালিকিন্না-সি, ইলা-হিন্নাসি, মিন শাররিল ওয়াসওয়া-সিল খান্না-স, আল্লাযি ইউওয়াসউইসু ফী সুদূরিন না-সি, মিনাল জিন্নাতি ওয়ান্না-স।
উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

সালাম ফিরানোর পর আয়াতুল কুরসি (2:255)

[ প্রত্যেক সালাতের পর একবার আয়াতুল কুরসি (2:255) পড়তে হয় । প্রসঙ্গত বলে রাখি এটা পড়ার পরে বুকে ফু দেয়া যাবে না । বুকে ফু দেয়া সহীহ সুন্নাহ্ থেকে প্রমাণিত নয় । ]

আরবি :

اللّٰهُ لَاۤ اِلٰهَ اِلَّا هُوَ الۡحَـىُّ الۡقَيُّوۡمُ

অনুবাদ :
আল্লাহ্, তিনি ছাড়া কোনো সত্য ইলাহ্ নেই। তিনি চিরঞ্জীব, সর্বসত্তার ধারক।
উচ্চারণ :
আল্লা-হু লা ইলা-হা ইল্লা হুওয়াল হাইয়্যূল কাইয়্যূমু
আরবি :

لَا تَاۡخُذُهٗ سِنَةٌ وَّلَا نَوۡمٌ‌ؕ

অনুবাদ :
তাঁকে তন্দ্রাও স্পর্শ করতে পারে না, নিদ্রাও নয়।
উচ্চারণ :
লা তা’খুযুহু সিনাতুঁও ওয়ালা নাউম।
আরবি :

لَهٗ مَا فِى السَّمٰوٰتِ وَمَا فِى الۡاَرۡضِ

অনুবাদ :
আসমানসমূহে যা রয়েছে ও যমীনে যা রয়েছে সবই তাঁর।
উচ্চারণ :
লাহূ মা-ফিসসামা-ওয়া-তি ওয়ামা ফিল আরদ্বি।
আরবি :

مَنۡ ذَا الَّذِىۡ يَشۡفَعُ عِنۡدَهٗۤ اِلَّا بِاِذۡنِهٖ‌ؕ

অনুবাদ :
কে সে, যে তাঁর অনুমতি ব্যতীত তাঁর কাছে সুপারিশ করবে?
উচ্চারণ :
মান যাল্লাযী ইয়াশফা‘উ ‘ইনদাহূ ইল্লা বিইযনিহী।
আরবি :

يَعۡلَمُ مَا بَيۡنَ اَيۡدِيۡهِمۡ وَمَا خَلۡفَهُمۡ‌ۚ

অনুবাদ :
তাদের সামনে ও পিছনে যা কিছু আছে তা তিনি জানেন।
উচ্চারণ :
ইয়া‘লামু মা বাইনা আইদীহিম ওয়ামা খালফাহুম।
আরবি :

وَلَا يُحِيۡطُوۡنَ بِشَىۡءٍ مِّنۡ عِلۡمِهٖۤ اِلَّا بِمَا شَآءَ ۚ

অনুবাদ :
আর যা তিনি ইচ্ছে করেন তা ছাড়া তাঁর জ্ঞানের কোনো কিছুকেই তারা পরিবেষ্টন করতে পারে না।
উচ্চারণ :
ওয়ালা ইয়ুহীতূনা বিশাইইম মিন্ ইলমিহী ইল্লা বিমা শাআ।
আরবি :

وَسِعَ كُرۡسِيُّهُ السَّمٰوٰتِ وَالۡاَرۡضَ

অনুবাদ :
তাঁর ‘কুরসী’ আসমানসমূহ ও যমীনকে পরিব্যাপ্ত করে আছে;
উচ্চারণ :
ওয়াসি‘আ কুরসিয়্যুহুস সামা-ওয়া-তি ওয়াল আরদ্ব।
আরবি :

وَلَا يَـــُٔوۡدُهٗ حِفۡظُهُمَا

অনুবাদ :
আর এ দুটোর রক্ষণাবেক্ষণ তাঁর জন্য বোঝা হয় না।
উচ্চারণ :
ওয়ালা ইয়াউদুহূ হিফযুহুমা
আরবি :

وَهُوَ الۡعَلِىُّ الۡعَظِيۡمُ‏

অনুবাদ :
আর তিনি সুউচ্চ সুমহান।
উচ্চারণ :
ওয়া হুয়াল ‘আলিয়্যূল ‘আযীম

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

সালাম ফিরানোর পর সায়্যিদুল ইসতিগফার (ক্ষমা চাওয়ার শ্রেষ্ঠ দোআ)

[ এটি ফজর ও মাগরিব এর সালাতে সালাম ফিরানোর পরে পড়বে । ]

আরবি :

اَللّٰهُمَّ أَنْتَ رَبِّيْ لَا إِلٰهَ إِلَّا أَنْتَ، خَلَقْتَنِيْ وَأَنَا عَبْدُكَ

অনুবাদ :
হে আল্লাহ্‌! আপনি আমার রব্ব, আপনি ছাড়া আর কোনো হক্ব ইলাহ নেই। আপনি আমাকে সৃষ্টি করেছেন এবং আমি আপনার বান্দা।
উচ্চারণ :
আল্লা-হুম্মা আনতা রব্বী লা ইলা-হা ইল্লা আনতা খলাক্বতানী ওয়া আনা ‘আব্দুকা,
আরবি :

وَأَنَا عَلَى عَهْدِكَ وَوَعْدِكَ مَا اسْتَطَعْتُ، أَعُوْذُ بِكَ مِنْ شَرِّ مَا صَنَعْتُ

অনুবাদ :
আর আমি আমার সাধ্য মতো আপনার (তাওহীদের) অঙ্গীকার ও (জান্নাতের) প্রতিশ্রুতির উপর রয়েছি। আমি আমার কৃতকর্মের অনিষ্ট থেকে আপনার আশ্রয় চাই।
উচ্চারণ :
ওয়া আনা ‘আলা ‘আহদিকা ওয়া ওয়া‘দিকা মাস্তাত্বা‘তু। আ‘উযু বিকা মিন শাররি মা সানা‘তু,
আরবি :

أَبُوْءُ لَكَ بِنِعْمَتِكَ عَلَيَّ، وَأَبُوْءُ بِذَنْبِيْ

অনুবাদ :
আপনি আমাকে আপনার যে নিয়ামত দিয়েছেন তা আমি স্বীকার করছি, আর আমি স্বীকার করছি আমার অপরাধ।
উচ্চারণ :
আবূউলাকা বিনি‘মাতিকা ‘আলাইয়্যা, ওয়া আবূউ বিযাম্বী।
আরবি :

فَاغْفِرْ لِيْ فَإِنَّهُ لَا يَغْفِرُ الذُّنُوْبَ إِلَّا أَنْتَ

অনুবাদ :
অতএব আপনি আমাকে মাফ করুন। নিশ্চয় আপনি ছাড়া আর কেউ গুনাহসমূহ মাফ করে না।
উচ্চারণ :
ফাগফির লী, ফাইন্নাহূ লা ইয়াগফিরুয যুনূবা ইল্লা আনতা

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

জাহান্নাম থেকে আশ্রয় বা মুক্তি এবং জান্নাত চাওয়ার দোয়া

আরবি :

اَللّٰهُمَّ إِنِّيْ أَسْأَلُكَ الْجَنَّةَ وَأَعُوْذُ بِكَ مِنَ النَّارِ

অনুবাদ :
হে আল্লাহ! আমি আপনার কাছে জান্নাত চাই এবং জাহান্নাম থেকে আপনার কাছে আশ্রয় চাই
উচ্চারণ :
আল্লা-হুম্মা ইন্নী আসআলুকাল জান্নাতা ওয়া আ‘উযু বিকা মিনান্নার
উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

পিতা মাতার জন্য দোয়া

আরবি :

رَّبِّ ارۡحَمۡهُمَا كَمَا رَبَّيٰنِىۡ صَغِيۡرًا

অনুবাদ :
হে আমার রব, তাদের প্রতি দয়া করুন যেভাবে শৈশবে তারা আমাকে লালন-পালন করেছেন
উচ্চারণ :
রর্ব্বি হাম্হুমা-কামা-রব্বাইয়া-নী ছোয়াগীর।
উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

উপকারী জ্ঞান, পবিত্র রিযিক এবং কবুলযোগ্য আমলের দোয়া

[ সকালবেলা বলবে, ]

আরবি :

اَللّٰهُمَّ إِنِّيْ أَسْأَلُكَ عِلْمًا نَافِعًا، وَرِزْقًا طَيِّبًا، وَعَمَلًا مُتَقَبَّلًا

অনুবাদ :
হে আল্লাহ! আমি আপনার নিকট উপকারী জ্ঞান, পবিত্র রিযিক এবং কবুলযোগ্য আমল প্রার্থনা করি।
উচ্চারণ :
আল্লা-হুম্মা ইন্নি আসআলুকা ইলমান নাফে‘আন ওয়া রিয্‌কান তাইয়্যেবান ওয়া ‘আমালান মুতাক্বাব্বালান

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

জ্ঞান বৃদ্ধির জন্য দোয়া

আরবি :
رَّبِّ زِدۡنِىۡ عِلۡمًا

অনুবাদ :
হে আমার রব, আমার জ্ঞান বৃদ্ধি করে দিন
উচ্চারণ :
রব্বি যিদ্নী ‘ইল্মা-

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

মুখের জড়তা বা কথা বলতে সমস্যা দূর করার দোয়া

আরবি :

رَبِّ اشۡرَحۡ لِىۡ صَدۡرِىْ

অনুবাদ :
হে আমার রব, আমার বুক বা বক্ষ প্রশস্ত করে দিন
উচ্চারণ :
রব্বিশ্ রহ্লী ছোয়াদ্রী।
আরবি :

وَيَسِّرۡ لِىۡۤ اَمۡرِىْ

অনুবাদ :
এবং আমার কাজ সহজ করে দিন
উচ্চারণ :
অ ইয়ার্স্সিলী য় আম্রী।
আরবি :

وَاحۡلُلۡ عُقۡدَةً مِّنۡ لِّسَانِیْ

অনুবাদ :
আর আমার জিহবার জড়তা দূর করে দিন
উচ্চারণ :
ওয়াহ্লুল্ ‘উক্ব্দাতাম্ মিল্লিসা-নী।
আরবি :

يَفۡقَهُوۡا قَوۡلِیْ

অনুবাদ :
যাতে তারা আমার কথা বুঝতে পারে
উচ্চারণ :
ইয়াফ্ক্বাহূ ক্বওলী।
উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

বিভিন্ন রোগে ঝাড় ফুকের জন্য কয়েকটি দোয়া ।
অসুস্থতা ও বদ-নযর দূর করার জন্য দোয়া

[আবূ সাঈদ খুদরী (রা) বলেন, জিবরাঈল (আ) রাসূলুল্লাহ (স)-এর কাছে আগমন করেন (তখন তিনি জ্বরাক্রান্ত ছিলেন)। জিবরাঈল (আ) বলেন, মুহাম্মাদ, আপনি কি অসুস্থ? তিনি বলেন: হ্যাঁ। তখন তিনি এই দোয়া টি বলেন ।]

আরবি :

بِسْمِ اللّٰهِ أُرْقِيْكَ، مِنْ كُلِّ شَيْءٍ يُؤْذِيْكَ، مِنْ شَرِّ كُلِّ نَفْسٍ أَوْ عَيْنٍ حَاسِدٍ، اَللّٰهُ يَشْفِيْكَ، بِسْمِ اللّٰهِ أُرْقِيْكَ

অনুবাদ :
আল্লাহর নামে তোমাকে ঝাড়ফুঁক করছি, সকল কিছু থেকে যা তোমাকে কষ্ট দেয়, সকল প্রাণী ও হিংসুক চক্ষুর অনিষ্ট থেকে, আল্লাহ তোমাকে রোগমুক্ত করবেন, আল্লাহর নামে তোমাকে ঝাড়ফুঁক করছি।
উচ্চারণ :
বিসমিল্লা-হি র্আক্কীক, মিন কুল্লি শাইয়িন ইউ’যীক, মিন র্শারি কুল্লি নাফসিন আউ আইনিন ‘হা-সিদিন, আল্লা-হু ইয়াশফীক, বিসমিল্লা-হি র্আক্কীক।

অসুস্থ বা পীড়িত হলে তা থেকে মুক্তির জন্য করণীয়

[সূরা নাস ও সূরা ফালাক পড়ে নিজের শরীরে ফু দেওয়া এবং নিজের হাত দিয়ে শরীর মুছে ফেলা বা মাসেহ করা ।]

সূরা আল-ফালাক

আরবি :

بِسْمِ اللَّهِ الرَّحْمَٰنِ الرَّحِيمِ


قُلۡ اَعُوۡذُ بِرَبِّ الۡفَلَقِۙ‏ ﴿١﴾ مِنۡ شَرِّ مَا خَلَقَۙ‏ ﴿٢﴾ وَمِنۡ شَرِّ غَاسِقٍ اِذَا وَقَبَۙ‏ ﴿٣﴾ وَمِنۡ شَرِّ النَّفّٰثٰتِ فِى الۡعُقَدِۙ‏ ﴿٤﴾ وَمِنۡ شَرِّ حَاسِدٍ اِذَا حَسَدَ ﴿٥﴾

অনুবাদ :
রহমান, রহীম আল্লাহর নামে। বলুন, আমি আশ্রয় প্রার্থনা করছি ঊষার রবের। তিনি যা সৃষ্টি করেছেন তার অনিষ্ট হতে। ‘আর অনিষ্ট হতে রাতের অন্ধকারের, যখন তা গভীর হয়। আর অনিষ্ট হতে সমস্ত নারীদের, যারা গিরায় ফুঁক দেয়। আর অনিষ্ট হতে হিংসুকের, যখন সে হিংসা করে।
উচ্চারণ :
বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহীম। ক্বুল আ‘উযু বিরব্বিল ফালাক্ব। মিন শাররি মা খালাক্ব। ওয়া মিন শাররি গা-সিক্বিন ইযা ওয়াক্বাব। ওয়া মিন শাররিন নাফফা-সা-তি ফিল ‘উক্বাদ। ওয়া মিন শাররি হা-সিদিন ইযা হাসাদ
উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

সূরা আন-নাস,

আরবি :

بِسْمِ اللَّهِ الرَّحْمَٰنِ الرَّحِيمِ


قُلۡ اَعُوۡذُ بِرَبِّ النَّاسِۙ‏ ﴿١﴾ مَلِكِ النَّاسِۙ‏ ﴿٢﴾ اِلٰهِ النَّاسِۙ‏ ﴿٣﴾ مِنۡ شَرِّ الۡوَسۡوَاسِ ۙ الۡخَـنَّاسِ ۙ‏﴿٤﴾ الَّذِىۡ يُوَسۡوِسُ فِىۡ صُدُوۡرِ النَّاسِۙ‏ ﴿٥﴾ مِنَ الۡجِنَّةِ وَالنَّاسِ ﴿٦﴾

অনুবাদ :
রহমান, রহীম আল্লাহর নামে। বলুন, আমি আশ্রয় প্রার্থনা করছি মানুষের রবের, মানুষের অধিপতির, মানুষের ইলাহের কাছে, আত্মগোপনকারী কুমন্ত্রণাদাতার অনিষ্ট হতে; যে কুমন্ত্রণা দেয় মানুষের অন্তরে, জিনের মধ্য থেকে এবং মানুষের মধ্য থেকে।
উচ্চারণ :
বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহীম। ক্বুল ‘আউযু বিরাব্বিন্না-স। মালিকিন্না-সি, ইলা-হিন্নাসি, মিন শাররিল ওয়াসওয়া-সিল খান্না-স, আল্লাযি ইউওয়াসউইসু ফী সুদূরিন না-সি, মিনাল জিন্নাতি ওয়ান্না-স।
উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

সকাল ও বিকালের দোয়া বা যিকির (১০০ বার)

[ প্রতি দিন ১০০ বার বলবে, ]

আরবি :

أَسْتَغْفِرُ اللّٰهَ وَأَتُوْبُ إِلَيْهِ

অনুবাদ :
আমি আল্লাহ্‌র কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করছি এবং তাঁর নিকটই তাওবা করছি
উচ্চারণ :
আস্তাগফিরুল্লাহ ওয়া আতূবু ইলাইহি

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

সূরা বাকারাহ্‌ এর শেষ দুই আয়াত

[ রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন: যে ব্যক্তি রাতের বেলা সূরা বাকারার শেষ দুটি আয়াত পড়বে, তা তার জন্য যথেষ্ট হবে। ]

আরবি :

اٰمَنَ الرَّسُوۡلُ بِمَاۤ اُنۡزِلَ اِلَيۡهِ مِنۡ رَّبِّهٖ وَالۡمُؤۡمِنُوۡنَ‌ؕ كُلٌّ اٰمَنَ بِاللّٰهِ وَمَلٰٓئِكَتِهٖ وَكُتُبِهٖ وَرُسُلِهٖ لَا نُفَرِّقُ بَيۡنَ اَحَدٍ مِّنۡ رُّسُلِهٖ‌ وَقَالُوۡا سَمِعۡنَا وَاَطَعۡنَا‌ غُفۡرَانَكَ رَبَّنَا وَاِلَيۡكَ الۡمَصِيۡرُ‏

অনুবাদ :
রাসূল তার প্রভুর পক্ষ থেকে যা তার কাছে নাযিল করা হয়েছে তার উপর ঈমান এনেছেন এবং মুমিনগণও। প্রত্যেকেই ঈমান এনেছে আল্লাহর উপর, তাঁর ফেরেশতাগণ, তাঁর কিতাবসমূহ এবং তাঁর রাসূলগণের উপর। আমরা তাঁর রাসূলগণের কারও মধ্যে তারতম্য করি না। আর তারা বলে, আমরা শুনেছি ও মেনে নিয়েছি। হে আমাদের রব! আপনার ক্ষমা প্রার্থনা করি এবং আপনার দিকেই প্রত্যাবর্তনস্থল।
উচ্চারণ :
আ-মানার রাসূলু বিমা উনযিলা ইলাইহি মির রব্বিহী ওয়াল মু’মিনূন। কুল্লুন আ-মানা বিল্লা-হি ওয়া মালা-ইকাতিহী ওয়াকুতুবিহী ওয়া রুসুলিহ, লা নুফাররিক্বু বাইনা আহাদিম মির রুসুলিহ, ওয়া ক্বালু সামি‘না ওয়া আতা‘না গুফ্‌রা-নাকা রব্বানা ওয়া ইলাইকাল মাসীর।
আরবি :

لَا يُكَلِّفُ اللّٰهُ نَفۡسًا اِلَّا وُسۡعَهَا ‌ؕ لَهَا مَا كَسَبَتۡ وَعَلَيۡهَا مَا اكۡتَسَبَتۡ‌ؕ رَبَّنَا لَا تُؤَاخِذۡنَاۤ اِنۡ نَّسِيۡنَاۤ اَوۡ اَخۡطَاۡنَا ‌ۚ رَبَّنَا وَلَا تَحۡمِلۡ عَلَيۡنَاۤ اِصۡرًا كَمَا حَمَلۡتَهٗ عَلَى الَّذِيۡنَ مِنۡ قَبۡلِنَا ‌‌ۚرَبَّنَا وَلَا تُحَمِّلۡنَا مَا لَا طَاقَةَ لَنَا بِهٖ‌ ۚ وَاعۡفُ عَنَّا وَاغۡفِرۡ لَنَا وَارۡحَمۡنَا اَنۡتَ مَوۡلٰٮنَا فَانۡصُرۡنَا عَلَى الۡقَوۡمِ الۡكٰفِرِيۡنَ

অনুবাদ :
আল্লাহ্ কারো উপর এমন কোন দায়িত্ব চাপিয়ে দেন না যা তার সাধ্যাতীত। সে ভাল যা উপার্জন করে তার প্রতিফল তারই, আর মন্দ যা কামাই করে তার প্রতিফল তার উপরই বর্তায়। ‘হে আমাদের রব! যদি আমরা বিস্মৃত হই অথবা ভুল করি তবে আপনি আমাদেরকে পাকড়াও করবেন না। হে আমাদের রব! আমাদের পূর্ববর্তীগণের উপর যেমন বোঝা চাপিয়ে দিয়েছিলেন আমাদের উপর তেমন বোঝা চাপিয়ে দিবেন না। হে আমাদের রব! আপনি আমাদেরকে এমন কিছু বহন করাবেন না যার সামর্থ আমাদের নেই। আর আপনি আমাদের পাপ মোচন করুন, আমাদেরকে ক্ষমা করুন, আমাদের প্রতি দয়া করুন, আপনিই আমাদের অভিভাবক। অতএব কাফির সম্প্রদায়ের বিরুদ্ধে আমাদেরকে সাহায্য করুন।
উচ্চারণ :
লা ইয়ুকাল্লিফুল্লাহু নাফ্‌সান ইল্লা উস‘আহা লাহা মা কাসাবাত ওয়া আলাইহা মাক্তাসাবাত রব্বানা লা তুআখিয্‌না ইন নাসীনা আও আখ্‌ত্বা’না। রব্বনা ওয়ালা তাহ্‌মিল ‘আলাইনা ইসরান কামা হামালতাহু ‘আলাল্লাযীনা মিন ক্বাবলিনা। রব্বনা ওয়ালা তুহাম্মিলনা মা-লা ত্বা-ক্বাতা লানা বিহী। ওয়া‘ফু আন্না ওয়াগফির লানা ওয়ারহামনা আনতা মাওলা-না ফানসুরনা ‘আলাল ক্বাউমিল কাফিরীন

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

ইফতারের সময় দোয়া

[ ইফতারের সময় হলে সর্বপ্রথমে “বিসমিল্লাহ” বলে “খেজুর” বা “শরবত” বা এগুলো না থাকলে “শুধু পানি” পান করবে । এরপর নিচের দোয়া টি পড়বে এবং তারপর বাকি অন্য খাবার গুলো খাবে । প্রসঙ্গত বলে রাখি , সমাজে প্রচলিত “বিসমিল্লাহি আল্লাহুম্মা লাকা সুমতু, ওয়া আ’লা রিযক্বিকা আফত্বারতু…” এটি পাঠ করা যাবে না । এটি সহীহ সুন্নাহ থেকে প্রমাণিত নয় । ]

আরবি :

ذَهَبَ الظَّمَأُ وَابْتَلَّتِ الْعُرُوْقُ، وَثَبَتَ الْأَجْرُ إِنْ شَاءَ اللّٰهُ

অনুবাদ :
পিপাসা মিটেছে, শিরাগুলো সিক্ত হয়েছে এবং আল্লাহ্‌ চান তো সওয়াব সাব্যস্ত হয়েছে।
উচ্চারণ :
যাহাবায-যামাউ ওয়াবতাল্লাতিল ‘উরূকু ওয়া সাবাতাল আজরু ইনশা-আল্লা-হু

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

খাওয়ার পূর্বে বা আগে দোয়া

আরবি :
بِسْمِ اللّٰهِ

অনুবাদ :
আল্লাহর নামে।
উচ্চারণ :
বিসমিল্লাহ

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

খাওয়ার পূর্বে বা আগে “বিসমিল্লাহ” বলতে ভুলে গেলে ।

আরবি :

بِسْمِ اللّٰهِ فِيْ أَوَّلِهِ وَآخِرِهِ

অনুবাদ :
এর শুরু ও শেষ আল্লাহ্‌র নামে।
উচ্চারণ :
বিস্‌মিল্লাহি ফী আওওয়ালিহী ওয়া আখিরিহী

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

আহার বা খাবার শেষে দোয়া

আরবি :

اَلْحَمْدُ لِلّٰهِ حَمْدًا كَثِيْرًا طَيِّبًا مُبَارَكًا فِيْهِ، غَيْرَ (مَكْفِيٍّ وَلَا) مُوَدَّعٍ، وَلَا مُسْتَغْنًى عَنْهُ رَبَّنَا

অনুবাদ :
আল্লাহর জন্যই সকল প্রশংসা; এমন প্রশংসা যা অঢেল, পবিত্র ও যাতে রয়েছে বরকত; [যা যথেষ্ট করা হয় নি] , যা বিদায় দিতে পারব না, আর যা থেকে বিমুখ হতে পারব না, হে আমাদের রব্ব!
উচ্চারণ :
আলহামদু লিল্লা-হি হামদান কাসীরান তায়্যিবান মুবা-রাকান ফীহি, গাইরা মাকফিয়্যিন ওয়ালা মুয়াদ্দা‘ইন, ওয়ালা মুসতাগনান ‘আনহু রব্বানা

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

হাঁচি দেওয়ার পরে দোয়া ও অন্য কারোর হাঁচি শুনলে যা বলতে হয় ও জবাব বা উত্তর
হাঁচি দেওয়ার পরে দোয়া

আরবি :

اَلْحَمْدُ لِلّٰهِ

অনুবাদ :
সকল প্রশংসা আল্লাহ্‌র
উচ্চারণ :
আলহামদুলিল্লাহ

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

অন্য কারোর হাঁচি শুনলে যা বলতে হয়

আরবি :

يَرْحَمُكَ اللّٰهُ

অনুবাদ :
আল্লাহ আপনাকে রহমত করুন
উচ্চারণ :
ইয়ারহামুকাল্লা-হ

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

যখন হাঁচিদাতাকে ইয়ারহামুকাল্লাহ বলা হয়, তখন হাঁচিদাতা যেন তার উত্তরে বলে,

আরবি :

يَهْدِيْكُمُ اللّٰهُ وَيُصْلِحُ بَالَكُمْ

অনুবাদ :
আল্লাহ আপনাদেরকে সৎপথ প্রদর্শন করুন এবং আপনাদের অবস্থা উন্নত করুন।
উচ্চারণ :
ইয়াহ্‌দীকুমুল্লা-হু ওয়া ইউসলিহু বা-লাকুম

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

নব বা নতুন বিবাহিতদের জন্য দোয়া

আরবি :

بَارَكَ اللّٰهُ لَكَ، وَبَارَكَ عَلَيْكَ، وَجَمَعَ بَيْنَكُمَا فِي خَيْرٍ

অনুবাদ :
আল্লাহ আপনার জন্য বরকতদান করুন, আপনার উপর বরকত নাযিল করুন এবং কল্যাণের সাথে আপনাদের উভয়কে একত্রিত করুন।
উচ্চারণ :
বা-রাকাল্লা-হু লাকা ওয়াবা-রাকা ‘আলাইকা ওয়া জামা‘আ বাইনাকুমা ফী খাইরিন্

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

স্ত্রী মিলন বা সহবাসের আগে দোয়া

আরবি :

بِسْمِ اللّٰهِ اَللّٰهُمَّ جَنِّبْنَا الشَّيْطَانَ وَجَنِّبِ الشَّيْطَانَ مَا رَزَقْتَنَا

অনুবাদ :
আল্লাহর নামে, হে আল্লাহ, আমাদেরকে শয়তান থেকে দূরে রাখুন এবং আমাদের যা রিযক দিবেন তা থেকে শয়তানকে দূরে রাখুন।
উচ্চারণ :
“বিসমিল্লা-হি, আল্লা-হুম্মা, জান্নিব্নাশ্ শাইত্বা-না ওয়া জান্নিবিশ শাইত্বা-না মা- রাযাক্ক্তানা-।

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

ক্রোধ বা রাগ দমনের দোয়া

আরবি :

أَعُوْذُ بِاللّٰهِ مِنَ الشَّيْطَانِ الرَّجِيْمِ

অনুবাদ :
আল্লাহ্‌র নিকট আশ্রয় চাই বিতাড়িত শয়তান থেকে।
উচ্চারণ :
আ‘ঊযু বিল্লাহি মিনাশ্-শাইত্বা-নির রাজীম

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

কেউ আপনার উপকার করলে বা ভালো ব্যবহার করলে তার জন্য দোয়া

আরবি :

جَزَاكَ اللّٰهُ خَيْراً

অনুবাদ :
আল্লাহ আপনাকে উত্তম বিনিময় দান করুন।
উচ্চারণ :
জাযা-কাল্লা-হু খাইরান

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

সুসন্তান বা ভালো সন্তান লাভের জন্য দোয়া

আরবি :

رَبِّ هَبۡ لِىۡ مِنَ الصّٰلِحِيۡنَ

অনুবাদ :
‘হে আমার রব, আমাকে সৎকর্মশীল সন্তান দান করুন
উচ্চারণ :
রব্বি হাব্লী মিনাছ্ ছোয়া-লিহীন্।

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

বাজারে প্রবেশের দোয়া

আরবি :

لَا إِلٰهَ إِلَّا اللّٰهُ وَحْدَهُ لَا شَرِيْكَ لَهُ، لَهُ الْمُلْكُ، وَلَهُ الْحَمْدُ، يُحْيِيْ وَيُمِيْتُ، وَهُوَ حَيٌّ لَا يَمُوْتُ، بِيَدِهِ الْخَيْرُ، وَهُوَ عَلَى كُلِّ شَيْءٍ قَدِيْرٌ

অনুবাদ :
একমাত্র আল্লাহ ছাড়া কোনো হক্ব ইলাহ নেই, তাঁর কোনো শরিক নেই, রাজত্ব তাঁরই, প্রশংসা মাত্রই তাঁর। তিনিই জীবন দান করেন এবং তিনিই মারেন। আর তিনি চিরঞ্জীব, মারা যাবেন না। সকল প্রকার কল্যাণ তাঁর হাতে নিহিত। তিনি সব কিছুর উপর ক্ষমতাবান।
উচ্চারণ :
লা ইলা-হা ইল্লাল্লা-হু ওয়াহ্‌দাহু লা শারীকালাহু লাহুল-মুলকু ওয়ালাহুল হামদু ইয়ুহঈ ওয়াইয়ুমীতু ওয়াহুয়া হায়্যুন লা ইয়ামূতু বিয়াদিহিল খাইরু ওয়া হুওয়া ‘আলা কুল্লি শাই’ইন ক্বাদীর

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

বৈঠক বা যেকোন আলোচনা শেষে কাফ্‌ফারা হিসেবে দোয়া

আরবি :

سُبْحَانَكَ اللّٰهُمَّ وَبِحَمْدِكَ، أَشْهَدُ أَنْ لَا إِلٰهَ إِلَّا أَنْتَ، أَسْتَغْفِرُكَ وَأَتُوْبُ إِلَيْكَ

অনুবাদ :
হে আল্লাহ! আমি আপনার প্রশংসা সহকারে আপনার পবিত্রতা ঘোষণা করি। আমি সাক্ষ্য দেই যে, আপনি ছাড়া হক্ব কোনো ইলাহ নেই। আমি আপনার নিকট ক্ষমা প্রার্থনা করি এবং আপনার নিকট তওবা করি।
উচ্চারণ :
সুব্‌হা-নাকাল্লা-হুম্মা ওয়া বিহামদিকা আশহাদু আল্লা ইলাহা ইল্লা আনতা আস্তাগফিরুকা ওয়া আতূবু ইলাইকা

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

যে কোন কিছুর উপরে উঠা ও নিচে নামার দোয়া
উপরে উঠার দোয়া

[উপরে উঠা বলতে , সিঁড়ি দিয়ে বা লিফট দিয়ে বা পাহাড়ে উঠা ইত্যাদি যেকোনো উঁচু স্থানে উঠাকে বুঝাই]

আরবি :

اَللّٰهُ أَكْبَرُ

অনুবাদ :
আল্লাহ সবচেয়ে বড়।
উচ্চারণ :
আল্লা-হু আকবার

নিচে নামার দোয়া

[নিচে নামা বলতে , সিঁড়ি বা লিফট দিয়ে বা পাহাড়ে বা যেকোনো উঁচু স্থান থেকে নিচে নামকে বুঝাই]

আরবি :

سُبْحَانَ اللّٰهِ

অনুবাদ :
আল্লাহ কতই না পবিত্র-মহান।
উচ্চারণ :
সুবহা-নাল্লাহ

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

দুঃখ ও দুশ্চিন্তা বা চিন্তা দূর করার দোয়া

আরবি :

اَللّٰهُمَّ إِنِّيْ أَعُوْذُ بِكَ مِنَ الْهَمِّ وَالْحَزَنِ، وَالْعَجْزِ وَالْكَسَلِ، وَالْبُخْلِ وَالْجُبْنِ، وَضَلَعِ الدَّيْنِ وَغَلَبَةِ الرِّجَالِ

অনুবাদ :
হে আল্লাহ! নিশ্চয় আমি আপনার আশ্রয় নিচ্ছি দুশ্চিন্তা ও দুঃখ থেকে, অপারগতা ও অলসতা থেকে, কৃপণতা ও ভীরুতা থেকে, ঋণের ভার ও মানুষদের দমন-পীড়ন থেকে।
উচ্চারণ :
আল্লা-হুম্মা ইন্নি আ‘ঊযু বিকা মিনাল হাম্মি ওয়াল হাযানি, ওয়াল ‘আজযি ওয়াল কাসালি, ওয়াল বুখলি ওয়াল জুবনি, ওয়া দালা‘ইদ দ্বাইনে ওয়া গালাবাতির রিজা-লি
উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

দুর্দশাগ্রস্ত ব্যক্তির বা বিপদ-আপদ দূর করার দোয়া

আরবি :

لَا إِلٰهَ إِلَّا اللّٰهُ الْعَظِيْمُ الْحَلِيْمُ، لَا إِلٰهَ إِلَّا اللّٰهُ رَبُّ الْعَرْشِ الْعَظِيْمِ، لَا إِلٰهَ إِلَّا اللّٰهُ رَبُّ السَّمَوَاتِ وَرَبُّ الْأَرْضِ وَرَبُّ الْعَرْشِ الْكَرِيْمِ

অনুবাদ :
আল্লাহ ছাড়া কোনো হক্ব ইলাহ নেই, তিনি মহান ও সহিষ্ণু। ‘আল্লাহ ছাড়া কোনো হক্ব ইলাহ নেই, তিনি মহান আরশের রব্ব। আল্লাহ ছাড়া কোনো হক্ব ইলাহ নেই, তিনি আসমানসমূহের রব্ব, যমীনের রব্ব এবং সম্মানিত আরশের রব্ব।
উচ্চারণ :
লা ইলা-হা ইল্লাল্লা-হুল ‘আযীমূল হালীম। লা ইলা-হা ইল্লাল্লা-হু রব্বুল ‘আরশিল ‘আযীম। লা ইলাহা ইল্লাল্লা-হু রব্বুস সামা-ওয়া-তি ওয়া রব্বুল আরদ্বি ওয়া রব্বুল ‘আরশিল কারীম
উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

শত্রু বা শক্তিধর ব্যক্তির সাক্ষাতকালে দোয়া

আরবি :

اَللّٰهُمَّ إِنَّا نَجْعَلُكَ فِيْ نُحُوْرِهِم، وَنَعُوْذُ بِكَ مِنْ شُرُوْرِهِمْ

অনুবাদ :
হে আল্লাহ! আমরা আপনাকে তাদের গলদেশে রাখছি এবং তাদের অনিষ্ট থেকে আপনার নিকট আশ্রয় প্রার্থনা করছি।
উচ্চারণ :
আল্লা-হুম্মা ইন্না নাজ্‘আলুকা ফী নুহূরিহিম ওয়া না‘উযু বিকা মিন শুরূরিহিম
উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

মোরগের ডাক ও গাধার স্বর বা রাতে কুকুরের ডাক শুনলে দোয়া

“যখন তোমরা মোরগের ডাক শুনবে, তখন তোমরা আল্লাহ্‌র অনুগ্রহ চাইবে, কেননা সে একটি ফেরেশতা দেখেছে। আর যখন তোমরা কোনো গাধার স্বর শুনবে, তখন শয়তান থেকে আল্লাহ্‌র কাছে আশ্রয় চাইবে; কেননা সে শয়তান দেখেছে।” আবার “যখন তোমরা রাত্রিবেলা কুকুরের ডাক ও গাধার স্বর শুনবে, তখন তোমরা সেগুলো থেকে আল্লাহ্‌র কাছে আশ্রয় চাও; কেননা সেগুলো তা দেখে তোমরা যা দেখতে পাও না।”

মোরগের ডাক শুনলে,আল্লাহ্‌র অনুগ্রহ চাইতে হয় । অনুগ্রহ চাওয়ার জন্য নিন্মের দোয়াটি পড়া যায়

আরবি :

اَللّٰهُمَّ إِنِّيْ أَسْأَلُكَ مِنْ فَضْلِكَ

অনুবাদ :
হে আল্লাহ! আপনি আমার গুনাসমূহ মাফ করে দিন বা আমি তোমার অনুগ্রহ প্রার্থনা করছি
উচ্চারণ :
আল্লা-হুম্মা ইন্নী আসআলুকা মিন ফাদ্বলিকা
উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

কুকুরের ডাক ও গাধার স্বর শুনলে আল্লাহ্‌র কাছে আশ্রয় চাইতে হয় । আশ্রয় চাওয়ার জন্য নিন্মের দোয়াটি পড়া যায়

আরবি :

أَعُوْذُ بِاللّٰهِ مِنَ الشَّيْطَانِ الرَّجِيْمِ

অনুবাদ :
বিতাড়িত শয়তান থেকে আমি আল্লাহ্‌র আশ্রয় নিচ্ছি।
উচ্চারণ :
আ‘ঊযু বিল্লা-হি মিনাশ শাইত্বানির রাজীম
উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

মনে খারাপ চিন্তা আসলে দোয়া

আরবি :

أَعُوْذُ بِاللّٰهِ مِنَ الشَّيْطَانِ الرَّجِيْمِ

অনুবাদ :
আল্লাহ্‌র নিকট আশ্রয় চাই বিতাড়িত শয়তান থেকে।
উচ্চারণ :
আ‘ঊযু বিল্লাহি মিনাশ্-শাইত্বা-নির রাজীম
উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

ভীত বা ভয় অবস্থায় দোয়া

আরবি :

لَا إِلٰهَ إِلَّا اللّٰهُ

অনুবাদ :
আল্লাহ ব্যতীত কোনো হক্ব বা সত্য উপাস্য নেই!
উচ্চারণ :
লা ইলা-হা ইল্লাল্লা-হ!
উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

ঋণ মুক্তির জন্য দোয়া

আরবি :
اَللّٰهُمَّ اكْفِنِيْ بِحَلاَلِكَ عَنْ حَرَامِكَ، وَأَغْنِنِيْ بِفَضْلِكَ عَمَّنْ سِوَاكَ

অনুবাদ :
হে আল্লাহ! আপনি আমাকে আপনার হালাল দ্বারা পরিতুষ্ট করে আপনার হারাম থেকে ফিরিয়ে রাখুন এবং আপনার অনুগ্রহ দ্বারা আপনি ছাড়া অন্য সকলের থেকে আমাকে অমুখাপেক্ষী করে দিন।
উচ্চারণ :
আল্লা-হুম্মাকফিনী বিহালা-লিকা ‘আন হারা-মিকা ওয়া আগনিনী বিফাদ্বলিকা ‘আম্মান সিওয়া-ক
উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

সালাতে ও কিরাআতে শয়তানের কুমন্ত্রণায় পতিত হলে দোয়া

আরবি :

أَعُوْذُ بِاللّٰهِ مِنَ الشَّيْطَانِ الرَّجِيْمِ

অনুবাদ :
বিতাড়িত শয়তান থেকে আমি আল্লাহ্‌র আশ্রয় নিচ্ছি।
উচ্চারণ :
আ‘ঊযু বিল্লা-হি মিনাশ শাইত্বানির রাজীম

[ অতঃপর বাম দিকে তিনবার থুতু ফেলবে (আস্তে করে অল্প পরিমাণ যাতে অন্যের সালাতে সমস্যা না হয় )। ]

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

পাপ করে ফেললে যা বলবে বা যা করবে
যদি কোনো বান্দা কোনো পাপ কাজ করে ফেলে, অতঃপর সে উত্তমরূপে পবিত্রতা অর্জন করে এবং দাঁড়িয়ে যায় ও দু রাক‘আত সালাত আদায় করে, তারপর আল্লাহ্‌র কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করে, তাহলে আল্লাহ তাকে ক্ষমা করে দেবেন।

রোগী বা অসুস্থ ব্যক্তি কে দেখতে গিয়ে তার জন্য দোয়া

আরবি :

لَا بَأْسَ طَهُوْرٌ إِنْ شَاءَ اللّٰهُ

অনুবাদ :
কোনো ক্ষতি নেই, আল্লাহ যদি চান তো (রোগটি গুনাহ থেকে) পবিত্রকারী হবে।
উচ্চারণ :
লা বা’সা তহুরুন ইন শা-আল্লা-হ

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

আল্লাহ্‌র নিকট সবচেয়ে অধিক প্রিয় বা পছন্দের বাক্য

আরবি :

سُبْحَانَ اللّٰهِ، وَالْحَمْدُ لِلّٰهِ، وَلَا إِلٰهَ إِلَّا اللّٰهُ، وَاللّٰهُ أَكْبَرُ

অনুবাদ :
আল্লাহ পবিত্র-মহান। সকল হামদ-প্রশংসা আল্লাহর। আল্লাহ ছাড়া কোনো হক্ব ইলাহ নেই। আল্লাহ সবচেয়ে বড়।
উচ্চারণ :
সুবহানাল্লা-হি ওয়ালহাম্‌দু লিল্লা-হি ওয়ালা ইলা-হা ইল্লাল্লা-হু ওয়াল্লা-হু আকবার
উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

সর্বশ্রেষ্ঠ দোয়া এবং সর্বোত্তম যিকর

[ সর্বশ্রেষ্ঠ দোয়া হল, ]

আরবি :

اَلْحَمْدُ لِلّٰهِ

অনুবাদ :
সকল প্রশংসা আল্লাহরই
উচ্চারণ :
আলহামদু লিল্লাহ

[ আর সর্বোত্তম যিকর হল, ]

আরবি :

لَا إِلٰهَ إِلَّا اللّٰهُ

অনুবাদ :
আল্লাহ ব্যতীত কোনো হক্ব বা সত্য ইলাহ নেই।
উচ্চারণ :
লা ইলাহা ইল্লাল্লাহ
উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

মরণাপন্ন ব্যক্তিকে যে দোয়া বা যিকর স্মরণ করিয়ে দেওয়া

আরবি :
لَا إِلٰهَ إِلَّا اللّٰهُ

অনুবাদ :
আল্লাহ ব্যতীত কোনো হক্ব বা সত্য ইলাহ নেই
উচ্চারণ :
লা ইলা-হা ইল্লাল্লা-হ

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

মৃত ব্যক্তির জন্য জানাযার সালাতে দোয়া

আরবি :

اَللّٰهُمَّ اغْفِرْ لِحَيِّنَا وَمَيِّتِنَا، وَشَاهِدِنَا وَغَائِبِنَا، وَصَغِيْرِنَا وَكَبِيْرِنَا وَذَكَرِنَا وَأُنْثَانَا، اَللّٰهُمَّ مَنْ أَحْيَيْتَهُ مِنَّا فَأَحْيِهِ عَلَى الْإِسْلاَمِ، وَمَنْ تَوَفَّيْتَهُ مِنَّا فَتَوَفَّهُ عَلَى الْإِيْمَانِ، اَللّٰهُمَّ لَا تَحْرِمْنَا أَجْرَهُ، وَلَا تُضِلَّنَا بَعْدَهُ

অনুবাদ :
হে আল্লাহ! আমাদের জীবিত ও মৃত, উপস্থিত ও অনুপস্থিত, ছোট ও বড় এবং নর ও নারীদেরকে ক্ষমা করুন। হে আল্লাহ! আপনি আমাদের মধ্যে যাদের আপনি জীবিত রাখবেন তাদেরকে ইসলামের উপর জীবিত রাখুন এবং যাদেরকে মৃত্যু দান করবেন তাদেরকে ঈমানের সাথে মৃত্যু দান করুন। হে আল্লাহ! আমাদেরকে তার (মৃত্যুতে ধৈয্যধারণের) সওয়াব থেকে বঞ্চিত করবেন না এবং তার (মৃত্যুর) পর আমাদেরকে পথভ্রষ্ট করবেন না।
উচ্চারণ :
আল্লা-হুম্মাগফির লিহায়্যিনা ওয়া মায়্যিতিনা ওয়া শা-হিদিনা ওয়া গা-য়িবিনা ওয়া সগীরিনা ওয়া কাবীরিনা ওয়া যাকারিনা ওয়া উনসা-না। আল্লা-হুম্মা মান আহ্ইয়াইতাহু মিন্না ফা’আহয়িহি ‘আলাল-ইসলাম। ওয়ামান তাওয়াফ্‌ফাইতাহু মিন্না ফাতাওয়াফফাহু ‘আলাল ঈমান। আল্লা-হুম্মা লা তাহরিমনা আজরাহু ওয়ালা তুদ্বিল্লান্না বা‘দাহু
উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

যে কোনো মুসিবতে বা বিপদে পতিত ব্যক্তির দোয়া

আরবি :
إِنَّا لِلّٰهِ وَإِنَّا إِلَيْهِ رَاجِعُوْنَ، اَللّٰهُمَّ أَجُرْنِيْ فِيْ مُصِيْبَتِيْ، وَأَخْلِفْ لِيْ خَيْرًا مِّنْهَا

অনুবাদ :
আমরা তো আল্লাহ্‌রই। আর নিশ্চয় আমরা তাঁর দিকেই প্রত্যাবর্তনকারী। হে আল্লাহ! আমাকে আমার বিপদে সওয়াব দিন এবং আমার জন্য তার চেয়েও উত্তম কিছু স্থলাভিষিক্ত করে দিন।
উচ্চারণ :
ইন্না লিল্লা-হি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজি‘উন। আল্লা-হুম্মা আজুরনী ফী মুসীবাতী ওয়াখলুফ লী খাইরাম মিনহা

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

দরজা জানালা বন্ধ করা ও যে কোন খাদ্যদ্রব্য ঢাকার সময় দোয়া

[দরজা জানালা বন্ধ করা ও যে কোন খাদ্যদ্রব্য ঢাকার সময় বলতে হবে “বিসমিল্লাহ” ।]

<আরবি :

بِسْمِ اللّٰهِ

অনুবাদ :
আল্লাহ্‌র নামে

উচ্চারণ :
বিসমিল্লাহ

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

[দরজা জানালা বন্ধ করা ও যে কোন খাদ্যদ্রব্য ঢাকার কিছু না থাকলে “বিসমিল্লাহ” বলে একটি “খড়ি” দরজায় অথবা হাড়ি-পাতিলের উপর রাখবে । এতে যে কোন ধরণের বালা মুছীবত থেকে ঘর ও খাদ্যদ্রব্য নিরাপদ থাকবে ।]

ঘুমাতে যাওয়ার আগে দোয়া ও যিকির

[ ঘুমাতে যাওয়ার আগে প্রতিদিন কিছু দোয়া বা যিকির পড়তে হয় । নিন্মে কিছু গুরুত্বপূর্ণ দোয়া পর্যায়ক্রমে দেওয়া হলো । ]

প্রথমে আয়াতুল কুরসি

আরবি :

اللّٰهُ لَاۤ اِلٰهَ اِلَّا هُوَ الۡحَـىُّ الۡقَيُّوۡمُ

অনুবাদ :
আল্লাহ্, তিনি ছাড়া কোনো সত্য ইলাহ্ নেই। তিনি চিরঞ্জীব, সর্বসত্তার ধারক।
উচ্চারণ :
আল্লা-হু লা ইলা-হা ইল্লা হুওয়াল হাইয়্যূল কাইয়্যূমু
আরবি :

لَا تَاۡخُذُهٗ سِنَةٌ وَّلَا نَوۡمٌ‌ؕ

অনুবাদ :
তাঁকে তন্দ্রাও স্পর্শ করতে পারে না, নিদ্রাও নয়।
উচ্চারণ :
লা তা’খুযুহু সিনাতুঁও ওয়ালা নাউম।
আরবি :

لَهٗ مَا فِى السَّمٰوٰتِ وَمَا فِى الۡاَرۡضِ

অনুবাদ :
আসমানসমূহে যা রয়েছে ও যমীনে যা রয়েছে সবই তাঁর।
উচ্চারণ :
লাহূ মা-ফিসসামা-ওয়া-তি ওয়ামা ফিল আরদ্বি।
আরবি :

مَنۡ ذَا الَّذِىۡ يَشۡفَعُ عِنۡدَهٗۤ اِلَّا بِاِذۡنِهٖ‌ؕ

অনুবাদ :
কে সে, যে তাঁর অনুমতি ব্যতীত তাঁর কাছে সুপারিশ করবে?
উচ্চারণ :
মান যাল্লাযী ইয়াশফা‘উ ‘ইনদাহূ ইল্লা বিইযনিহী।
আরবি :

يَعۡلَمُ مَا بَيۡنَ اَيۡدِيۡهِمۡ وَمَا خَلۡفَهُمۡ‌ۚ

অনুবাদ :
তাদের সামনে ও পিছনে যা কিছু আছে তা তিনি জানেন।
উচ্চারণ :
ইয়া‘লামু মা বাইনা আইদীহিম ওয়ামা খালফাহুম।
আরবি :

وَلَا يُحِيۡطُوۡنَ بِشَىۡءٍ مِّنۡ عِلۡمِهٖۤ اِلَّا بِمَا شَآءَ ۚ

অনুবাদ :
আর যা তিনি ইচ্ছে করেন তা ছাড়া তাঁর জ্ঞানের কোনো কিছুকেই তারা পরিবেষ্টন করতে পারে না।
উচ্চারণ :
ওয়ালা ইয়ুহীতূনা বিশাইইম মিন্ ইলমিহী ইল্লা বিমা শাআ।
আরবি :

وَسِعَ كُرۡسِيُّهُ السَّمٰوٰتِ وَالۡاَرۡضَ

অনুবাদ :
তাঁর ‘কুরসী’ আসমানসমূহ ও যমীনকে পরিব্যাপ্ত করে আছে;
উচ্চারণ :
ওয়াসি‘আ কুরসিয়্যুহুস সামা-ওয়া-তি ওয়াল আরদ্ব।
আরবি :

وَلَا يَـــُٔوۡدُهٗ حِفۡظُهُمَا

অনুবাদ :
আর এ দুটোর রক্ষণাবেক্ষণ তাঁর জন্য বোঝা হয় না।
উচ্চারণ :
ওয়ালা ইয়াউদুহূ হিফযুহুমা
আরবি :

وَهُوَ الۡعَلِىُّ الۡعَظِيۡمُ‏

অনুবাদ :
আর তিনি সুউচ্চ সুমহান।
উচ্চারণ :
ওয়া হুয়াল ‘আলিয়্যূল ‘আযীম

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

এরপর কুরআনের শেষ তিন সূরা পড়ে শরীর মাসেহ করা
সূরা ইখলাস

আরবি :

بِسْمِ اللَّهِ الرَّحْمَٰنِ الرَّحِيمِ


قُلۡ هُوَ اللّٰهُ اَحَدٌ‌ ۚ‏﴿١﴾ اَللّٰهُ الصَّمَدُ‌ ۚ‏﴿٢﴾ لَمۡ يَلِدۡ ۙوَلَمۡ يُوۡلَدۡ ۙ‏﴿٣﴾ وَلَمۡ يَكُنۡ لَّهٗ كُفُوًا اَحَدٌ ﴿٤﴾‏‏ ‏

অনুবাদ :
রহমান, রহীম আল্লাহর নামে। বলুন, তিনি আল্লাহ্, এক-অদ্বিতীয়। আল্লাহ্ হচ্ছেন ‘সামাদ’ (তিনি কারো মুখাপেক্ষী নন, সকলেই তাঁর মুখাপেক্ষী)। তিনি কাউকেও জন্ম দেন নি এবং তাঁকেও জন্ম দেয়া হয় নি। আর তাঁর সমতুল্য কেউই নেই।
উচ্চারণ :
বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহীম। ক্বুল হুওয়াল্লা-হু আহাদ। আল্লাহুস্ সামাদ। লাম ইয়ালিদ ওয়া লাম ইউলাদ। ওয়া লাম ইয়াকুল্লাহু কুফুওয়ান আহাদ
উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

সূরা আল-ফালাক

আরবি :

بِسْمِ اللَّهِ الرَّحْمَٰنِ الرَّحِيمِ


قُلۡ اَعُوۡذُ بِرَبِّ الۡفَلَقِۙ‏ ﴿١﴾ مِنۡ شَرِّ مَا خَلَقَۙ‏ ﴿٢﴾ وَمِنۡ شَرِّ غَاسِقٍ اِذَا وَقَبَۙ‏ ﴿٣﴾ وَمِنۡ شَرِّ النَّفّٰثٰتِ فِى الۡعُقَدِۙ‏ ﴿٤﴾ وَمِنۡ شَرِّ حَاسِدٍ اِذَا حَسَدَ ﴿٥﴾

অনুবাদ :
রহমান, রহীম আল্লাহর নামে। বলুন, আমি আশ্রয় প্রার্থনা করছি ঊষার রবের। তিনি যা সৃষ্টি করেছেন তার অনিষ্ট হতে। ‘আর অনিষ্ট হতে রাতের অন্ধকারের, যখন তা গভীর হয়। আর অনিষ্ট হতে সমস্ত নারীদের, যারা গিরায় ফুঁক দেয়। আর অনিষ্ট হতে হিংসুকের, যখন সে হিংসা করে।
উচ্চারণ :
বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহীম। ক্বুল আ‘উযু বিরব্বিল ফালাক্ব। মিন শাররি মা খালাক্ব। ওয়া মিন শাররি গা-সিক্বিন ইযা ওয়াক্বাব। ওয়া মিন শাররিন নাফফা-সা-তি ফিল ‘উক্বাদ। ওয়া মিন শাররি হা-সিদিন ইযা হাসাদ
উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

সূরা আন-নাস,

আরবি :

بِسْمِ اللَّهِ الرَّحْمَٰنِ الرَّحِيمِ


قُلۡ اَعُوۡذُ بِرَبِّ النَّاسِۙ‏ ﴿١﴾ مَلِكِ النَّاسِۙ‏ ﴿٢﴾ اِلٰهِ النَّاسِۙ‏ ﴿٣﴾ مِنۡ شَرِّ الۡوَسۡوَاسِ ۙ الۡخَـنَّاسِ ۙ‏﴿٤﴾ الَّذِىۡ يُوَسۡوِسُ فِىۡ صُدُوۡرِ النَّاسِۙ‏ ﴿٥﴾ مِنَ الۡجِنَّةِ وَالنَّاسِ ﴿٦﴾

অনুবাদ :
রহমান, রহীম আল্লাহর নামে। বলুন, আমি আশ্রয় প্রার্থনা করছি মানুষের রবের, মানুষের অধিপতির, মানুষের ইলাহের কাছে, আত্মগোপনকারী কুমন্ত্রণাদাতার অনিষ্ট হতে; যে কুমন্ত্রণা দেয় মানুষের অন্তরে, জিনের মধ্য থেকে এবং মানুষের মধ্য থেকে।
উচ্চারণ :
বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহীম। ক্বুল ‘আউযু বিরাব্বিন্না-স। মালিকিন্না-সি, ইলা-হিন্নাসি, মিন শাররিল ওয়াসওয়া-সিল খান্না-স, আল্লাযি ইউওয়াসউইসু ফী সুদূরিন না-সি, মিনাল জিন্নাতি ওয়ান্না-স।
উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

এরপর সূরা বাকারাহ্‌ এর শেষ দুই আয়াত

আরবি :

اٰمَنَ الرَّسُوۡلُ بِمَاۤ اُنۡزِلَ اِلَيۡهِ مِنۡ رَّبِّهٖ وَالۡمُؤۡمِنُوۡنَ‌ؕ كُلٌّ اٰمَنَ بِاللّٰهِ وَمَلٰٓئِكَتِهٖ وَكُتُبِهٖ وَرُسُلِهٖ لَا نُفَرِّقُ بَيۡنَ اَحَدٍ مِّنۡ رُّسُلِهٖ‌ وَقَالُوۡا سَمِعۡنَا وَاَطَعۡنَا‌ غُفۡرَانَكَ رَبَّنَا وَاِلَيۡكَ الۡمَصِيۡرُ‏

অনুবাদ :
রাসূল তার প্রভুর পক্ষ থেকে যা তার কাছে নাযিল করা হয়েছে তার উপর ঈমান এনেছেন এবং মুমিনগণও। প্রত্যেকেই ঈমান এনেছে আল্লাহর উপর, তাঁর ফেরেশতাগণ, তাঁর কিতাবসমূহ এবং তাঁর রাসূলগণের উপর। আমরা তাঁর রাসূলগণের কারও মধ্যে তারতম্য করি না। আর তারা বলে, আমরা শুনেছি ও মেনে নিয়েছি। হে আমাদের রব! আপনার ক্ষমা প্রার্থনা করি এবং আপনার দিকেই প্রত্যাবর্তনস্থল।
উচ্চারণ :
আ-মানার রাসূলু বিমা উনযিলা ইলাইহি মির রব্বিহী ওয়াল মু’মিনূন। কুল্লুন আ-মানা বিল্লা-হি ওয়া মালা-ইকাতিহী ওয়াকুতুবিহী ওয়া রুসুলিহ, লা নুফাররিক্বু বাইনা আহাদিম মির রুসুলিহ, ওয়া ক্বালু সামি‘না ওয়া আতা‘না গুফ্‌রা-নাকা রব্বানা ওয়া ইলাইকাল মাসীর।
আরবি :

لَا يُكَلِّفُ اللّٰهُ نَفۡسًا اِلَّا وُسۡعَهَا ‌ؕ لَهَا مَا كَسَبَتۡ وَعَلَيۡهَا مَا اكۡتَسَبَتۡ‌ؕ رَبَّنَا لَا تُؤَاخِذۡنَاۤ اِنۡ نَّسِيۡنَاۤ اَوۡ اَخۡطَاۡنَا ‌ۚ رَبَّنَا وَلَا تَحۡمِلۡ عَلَيۡنَاۤ اِصۡرًا كَمَا حَمَلۡتَهٗ عَلَى الَّذِيۡنَ مِنۡ قَبۡلِنَا ‌‌ۚرَبَّنَا وَلَا تُحَمِّلۡنَا مَا لَا طَاقَةَ لَنَا بِهٖ‌ ۚ وَاعۡفُ عَنَّا وَاغۡفِرۡ لَنَا وَارۡحَمۡنَا اَنۡتَ مَوۡلٰٮنَا فَانۡصُرۡنَا عَلَى الۡقَوۡمِ الۡكٰفِرِيۡنَ

অনুবাদ :
আল্লাহ্ কারো উপর এমন কোন দায়িত্ব চাপিয়ে দেন না যা তার সাধ্যাতীত। সে ভাল যা উপার্জন করে তার প্রতিফল তারই, আর মন্দ যা কামাই করে তার প্রতিফল তার উপরই বর্তায়। ‘হে আমাদের রব! যদি আমরা বিস্মৃত হই অথবা ভুল করি তবে আপনি আমাদেরকে পাকড়াও করবেন না। হে আমাদের রব! আমাদের পূর্ববর্তীগণের উপর যেমন বোঝা চাপিয়ে দিয়েছিলেন আমাদের উপর তেমন বোঝা চাপিয়ে দিবেন না। হে আমাদের রব! আপনি আমাদেরকে এমন কিছু বহন করাবেন না যার সামর্থ আমাদের নেই। আর আপনি আমাদের পাপ মোচন করুন, আমাদেরকে ক্ষমা করুন, আমাদের প্রতি দয়া করুন, আপনিই আমাদের অভিভাবক। অতএব কাফির সম্প্রদায়ের বিরুদ্ধে আমাদেরকে সাহায্য করুন।
উচ্চারণ :
লা ইয়ুকাল্লিফুল্লাহু নাফ্‌সান ইল্লা উস‘আহা লাহা মা কাসাবাত ওয়া আলাইহা মাক্তাসাবাত রব্বানা লা তুআখিয্‌না ইন নাসীনা আও আখ্‌ত্বা’না। রব্বনা ওয়ালা তাহ্‌মিল ‘আলাইনা ইসরান কামা হামালতাহু ‘আলাল্লাযীনা মিন ক্বাবলিনা। রব্বনা ওয়ালা তুহাম্মিলনা মা-লা ত্বা-ক্বাতা লানা বিহী। ওয়া‘ফু আন্না ওয়াগফির লানা ওয়ারহামনা আনতা মাওলা-না ফানসুরনা ‘আলাল ক্বাউমিল কাফিরীন

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

এরপর সূরা কাফিরূন পাঠ করা

আরবি :

بِسۡمِ اللّٰهِ الرَّحۡمٰنِ الرَّحِيۡمِ
قُلۡ يٰۤاَيُّهَا الۡكٰفِرُوۡنَۙ‏ ﴿۱﴾ لَاۤ اَعۡبُدُ مَا تَعۡبُدُوۡنَۙ‏ ﴿۲﴾ وَلَاۤ اَنۡـتُمۡ عٰبِدُوۡنَ مَاۤ اَعۡبُدُ‌ ۚ‏ ﴿۳﴾ وَلَاۤ اَنَا عَابِدٌ مَّا عَبَدۡتُّمۡۙ‏ ﴿۴﴾ وَ لَاۤ اَنۡـتُمۡ عٰبِدُوۡنَ مَاۤ اَعۡبُدُ ؕ‏ ﴿۵﴾ لَـكُمۡ دِيۡنُكُمۡ وَلِىَ دِيۡنِ‏ ﴿۶﴾

অনুবাদ :
পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি। বলুন, হে কাফেরকূল, আমি এবাদত করি না, তোমরা যার এবাদত করো। এবং তোমরাও এবাদতকারী নও, যার এবাদত আমি করি এবং আমি এবাদতকারী নই, যার এবাদত তোমরা কর। তোমরা এবাদতকারী নও, যার এবাদত আমি করি। তোমাদের কর্ম ও কর্মফল তোমাদের জন্যে এবং আমার কর্ম ও কর্মফল আমার জন্যে।
উচ্চারণ :
বিসমিল্লাহির রহমানির রাহিম। কুল ইয়া আইউহাল কাফিরূন। লা আ’বুদু মাতাবুদুন। ওয়ালা আনতুম আবিদুনা মা আবুদ। ওয়া লা আনা আবিদুনা মা আবাদতুম। ওয়ালা আনতুম আবিদুনা মাআবুদ। লাকুম দীনুকুম ওয়ালীয়া দ্বীন।
উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

এরপর , সূরা মূলক পাঠ করতে হবে । যাদের মুখস্ত নাই তারা দেখে দেখে পাঠ করবে ইং-শা-আল্লাহ । এই সূরাটি অত্যান্ত জরুরি কারণ এ সূরা পাঠে আল্লাহর রহমতে কবরের আজাব থেকে বাঁচা যায়।

যে দোয়া পড়ে ঘুমাতে হয়

আরবি :
اَللّٰهُمَّ بِاسْمِكَ أَمُوْتُ وَأَحْيَا

অনুবাদ :
হে আল্লাহ ! আপনার নাম নিয়েই আমি মরছি (ঘুমাচ্ছি) এবং আপনার নাম নিয়েই জীবিত (জাগ্রত) হবো।
উচ্চারণ :
আল্লাহুম্মা বিস্‌মিকা আমূতু ওয়া আহ্ইয়া

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

রাতে যখন পার্শ্ব পরিবর্তন করে তখন দোয়া

আরবি :

لَا إِلٰهَ إِلَّا اللّٰهُ الْوَاحِدُ الْقَهَّارُ، رَبُّ السَّمَوَاتِ وَالْأَرْضِ وَمَا بَيْنَهُمَا الْعَزِيْزُ الْغَفَّارُ

অনুবাদ :
মহাপ্রতাপশালী এক আল্লাহ ছাড়া আর কোনো হক্ব বা সত্য ইলাহ নেই। (তিনি) আসমানসমূহ, যমীন এবং এ দু’য়ের মধ্যস্থিত সবকিছুর রব্ব, প্রবলপরাক্রমশালী, পরম ক্ষমাশীল।
উচ্চারণ :
লা ইলা-হা ইল্লাল্লা-হুল ওয়াহিদুল কাহ্‌হারু রব্বুস্ সামা-ওয়া-তি ওয়াল-আরদ্বি ওয়ামা বাইনাহুমাল-‘আযীযুল গাফ্‌ফার

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

ঘুমন্ত অবস্থায় ভয় পেলে বা অস্থির লাগলে বা অস্বস্তিতে পড়ার দোয়া

আরবি :

أَعُوْذُ بِكَلِمَاتِ اللّٰهِ التَّامَّاتِ مِنْ غَضَبِهِ وَعِقَابِهِ، وَشَرِّ عِبَادِهِ، وَمِنْ هَمَزَاتِ الشَّيَاطِيْنِ وَأَنْ يَحْضُرُوْنِ

অনুবাদ :
আমি আশ্রয় চাই আল্লাহ্‌র পরিপূর্ণ কালামসমূহের অসীলায় তাঁর ক্রোধ থেকে, তাঁর শাস্তি থেকে, তাঁর বান্দাদের অনিষ্ট থেকে, শয়তানদের কুমন্ত্রণা থেকে এবং তাদের উপস্থিতি থেকে
উচ্চারণ :
আ‘ঊযু বিকালিমা-তিল্লাহিত্তা-ম্মাতি মিন্ গাদ্বাবিহি ওয়া ইক্বা-বিহি ওয়া শাররি ‘ইবা-দিহি ওয়ামিন হামাযা-তিশ্‌শায়া-ত্বীনি ওয়া আন ইয়াহ্‌দুরূন

উচ্চারণ শুনতে অডিও টি প্লে করুন :

ভালো বা খারাপ স্বপ্ন বা দুঃস্বপ্ন দেখে যা করবে
সৎ ও ভাল স্বপ্ন আল্লাহর তরফ হতে হয়ে থাকে। আর মন্দ স্বপ্ন শয়তানের তরফ হতে হয়ে থাকে। তাই যখন কেউ পছন্দনীয় বা ভাল কোন স্বপ্ন দেখে তখন এমন লোকের কাছেই বলবে, যাকে সে পছন্দ করে। অর্থাৎ তার ভালো নিকট বন্ধুদের বলতে পারে ।
আর, খারাপ বা অপছন্দনীয় কোন স্বপ্ন দেখলে যা যা করা উচিৎ :
১. তার বাম দিকে হাল্কা থুতু ফেলবে। (৩ বার)
২. শয়তান থেকে এবং যা দেখেছে তার অনিষ্ট থেকে আল্লাহর কাছে আশ্রয় চাইবে প্রার্থনা করবে। অর্থাৎ বলতে হবে , “আউজুবিল্লাহি মিনাশ শাইতানির রাজিম ।” (৩ বার)
৩. কাউকে এ ব্যাপারে কিছু বলবে না।
৪. অতঃপর যে পার্শ্বে সে ঘুমিয়েছিল তা পরিবর্তন করবে।
৫. যদি ইচ্ছা করে তবে উঠে সালাত আদায় করবে।

About Sayeed Hossain

{ Servant of Allah } Founder & CEO : muslimpoint.org For more details : sayeedhossain.com

View all posts by Sayeed Hossain →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *